kalerkantho

শনিবার । ৫ আষাঢ় ১৪২৮। ১৯ জুন ২০২১। ৭ জিলকদ ১৪৪২

ইতিহাস গড়ে দ্বিতীয়বার লন্ডনের মেয়র নির্বাচিত হলেন সাদিক খান

জুয়েল রাজ, লন্ডন থেকে   

৯ মে, ২০২১ ১৪:০১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ইতিহাস গড়ে দ্বিতীয়বার লন্ডনের মেয়র নির্বাচিত হলেন সাদিক খান

টানা দ্বিতীয় বারের মতো মর্যাদাপূর্ণ লন্ডন সিটি মেয়র নির্বাচিত হলেন পাকিস্তানি বংশোদ্ভূত সাদিক খান। গত ৬ মে অনুষ্ঠিত হওয়া নির্বাচনের চূড়ান্ত ফলাফল ৮ মে লন্ডন সময় সন্ধ্যার পর ঘোষিত হয়েছে।

যদিও বুথফেরত পোল হিসাবে সাদিক খান শুরু থেকেই এগিয়ে ছিলেন। লন্ডনের মেয়র নির্বাচনে সাদিক খানের প্রাপ্ত মোট ভোট ১২ লাখ ৬ হাজার ৩৪। 

তার প্রতিদ্বন্দ্বী শাউন বেইলি পেয়েছেন ৯ লাখ ৭৭ হাজার ৬০১ ভোট। মোট ভোটের শতকরা হিসেবে সাদিক পেয়েছেন ৫৫ দশমিক ২ ভাগ, আর শাউন পেয়েছেন ৪৪ দশমিক ৮ ভাগ ভোট। তৃতীয় অবস্থানে থাকা গ্রিন পার্টির সেইন বেরি পেয়েছেন এক লাখ ৯৭ হাজার ৯৭৬ ভোট।

এর আগে ২০১৬ সালের মেয়র নির্বাচনে ক্ষমতাসীন কনজারভেটিভ পার্টির প্রার্থী জ্যাক গোল্ডস্মিথকে ৯ শতাংশ ভোটের ব্যবধানে হারিয়ে প্রথম এশিয়ান, সংখ্যালঘু, মুসলিম হিসেবে লন্ডনের মেয়র নির্বাচিত হয়েছিলেন বর্তমান লেবার পার্টির মেয়র সাদিক খান। 

মিশ্র জাতির শহর লন্ডনে অভিবাসী ও ভিন্ন ভিন্ন সংস্কৃতির মানুষের কাছে উদার নীতির কারণে লেবার লন্ডনে সব সময় ভোটের রাজনীতিতে এগিয়ে থাকে। যদিও এবারের নির্বাচনে সাদিক খানের বড় চ্যালেঞ্জ ছিল ট্যাক্সি চালকদের ভোট। নানা কঠোর নিয়ম-নীতি ও ফিস নির্ধারণের জন্য এশিয়ান, মুসলিম এসব পরিচয়ের ভোটাররাও মুখ ফিরিয়ে নিয়েছিলেন, যার মধ্যে  একটি বিশাল সংখ্যা ছিল ট্যাক্সি চালকরা। 

অন্যদিকে সমকামীদের অধিকার আদায়ের পক্ষে ক্যাম্পেইনে অংশগ্রহণের কারণে কট্টর ধর্ম বিশ্বাসীরাও মুখ ফিরিয়ে নিয়েছিলেন। তাই অনেকেই ধারণা ছিল, সিটি হলের ক্ষমতা বদল হয়ে যাবে। 

কিন্ত সব হিসাব পাল্টে দিয়ে দ্বিতীয় বারের মতো মেয়র হিসেবে বিজয়ী হলেন সাদিক খান। লন্ডন মেয়র সাদিক খান এরই মধ্যে টুইট করেছেন : 'লন্ডনকে ধন্যবাদ। আমি আরো তিন বছরের জন্য যে শহরটিকে ভালোবাসি তার সেবা করা আমার জীবনের জন্য পরম সম্মানের বিষয়। আমাদের শহরটিকে তার চলার ছন্দে ফিরিয়ে আনতে আমি চেষ্টার কোনো ত্রুটি করব না। সম্ভাবনাময় উজ্জ্বল ভবিষ্যত আমরা সবাই মিলেই বাস্তবায়িত করব'।



সাতদিনের সেরা