kalerkantho

বুধবার । ২৯ বৈশাখ ১৪২৮। ১২ মে ২০২১। ২৯ রমজান ১৪৪২

ভারতের করোনা পরিস্থিতি নিয়ে কাঁদতে কাঁদতে বললেন চিকিৎসক

'৩৫ বছরের যুবককে ভেন্টিলেটরে দেখছি, অবস্থা খুবই খারাপ' (ভিডিও সহ)

অনলাইন ডেস্ক   

২১ এপ্রিল, ২০২১ ১৩:৪৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



'৩৫ বছরের যুবককে ভেন্টিলেটরে দেখছি, অবস্থা খুবই খারাপ' (ভিডিও সহ)

ভারতে করোনায় প্রতিদিনই হু হু করে বাড়ছে আক্রান্ত ‍ও মৃতের সংখ্যা। মঙ্গলবার নতুন করে আক্রান্তের সংখ্যা ২ লাখ ৯৪ হাজার। এর মধ্যে মৃত্যু হয়েছে দুই হাজার ২০ জনের। দেশটিতে হাসপাতালের অভাব, অক্সিজেনের সংকট, ভেন্টিলেটরও মিলছে না। এরই মধ্যে করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউয়ে রোজই নতুন আক্রান্তের সংখ্যার রেকর্ড গড়ছে। দেশটির সার্বিক পরিস্থিতির কথা ভিডিওবার্তায় তুলে ধরেছেন চিকিৎসক তৃপ্তি গিলাডা। আর সেই ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে।

ভিডিওতে তৃপ্তি গিলা কাঁদতে কাঁদতে বলছেন, 'আরো অনেক চিকিৎসকদের মতো তিনিও অসহায়, মুম্বাইয়ের পরিস্থিতি খুব খারাপ। সেখানের হাসপাতালে কোনো জায়গা নেই। আইসিইউতে কোনো জায়গা নেই। আমরা এর আগে এমন পরিস্থিতি কখনও দেখিনি। এই অবস্থায় নিজেরা নিজেদের সুরক্ষিত রাখুন'।

ভিডিওতে চিকিৎসা ব্যবস্থার অবস্থা এবং চিকিৎসকরদের অসহায়তার বিবরণ দিয়ে ডক্টর গিলাডা বলেন, গত একবছরে যদি আপনার করোনা হয়নি তাহলে নিজেকে সুপার হিরো ভাববেন না, ভাববেন না আপনার রোগ প্রতিরোধক্ষমতা দারুণ। এটা পুরোপুরি ভুল ধারণা। আমি ৩৫ বছরের যুবককে ভেন্টিলেটরে দেখছি। যার অবস্থা খুবই খারাপ।

তিনি আরো জানিয়েছেন, এর আগে কখনও এ রকম দেখা যায়নি যেখানে একসঙ্গে এত মানুষের তত্ত্বাবধান করতে হচ্ছে। অনেক মানুষকে বাড়িতে অক্সিজেন দিয়ে চিকিৎসা করা হচ্ছে। যারা ভ্যাকসিনের দুটি করে ডোজ পেয়েছেন তাদের মধ্যে সংক্রমণের মাত্রা খানিকটা কম। এটা পরিষ্কার যে করোনা সংক্রমণ রুখতে ভ্যাকসিনের ব্যবহার খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

সমস্ত চিকিৎসকদের হয়ে তিনি বলেছেন, 'এখন চিকিৎসকরা সকলেই মানসিকভাবে খুবই অস্বস্তির মধ্যে দিয়ে যাচ্ছেন। তবুও তারা কখনও না বলছেন না। নিজেদের সুরক্ষিত রাখুন। প্যানিক হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার কোনো দরকার নেই। কারণ যাদের প্রয়োজন তারা হাসপাতালে জায়গা পাচ্ছে না'।



সাতদিনের সেরা