kalerkantho

শুক্রবার। ৩১ বৈশাখ ১৪২৮। ১৪ মে ২০২১। ০২ শাওয়াল ১৪৪২

বিপদের সময় দায় এড়াচ্ছে কেন্দ্রীয় সরকার: মমতা

অনিতা চৌধুরী, কলকাতা প্রতিনিধি   

২০ এপ্রিল, ২০২১ ২১:৫১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বিপদের সময় দায় এড়াচ্ছে কেন্দ্রীয় সরকার: মমতা

ভারত সরকার গতকালই ঘোষণা দিয়েছে যে ১ মে থেকে ১৮ বছর বয়স হলেই টিকা নেওয়া যাবে। সোমবারের ঘোষণা অনুযায়ী শুধু মাত্র ১৮ বছরের কম বয়সীরা টিকা নিতে পারবেন না। দেশটির কেন্দ্রীয় সরকারের এই সিদ্ধান্তকে আজ এক হাত নিলেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি।

নরেন্দ্র মোদিকে লেখা একটি চিঠিতে মমতা অভিযোগ করে লেখেন, ‘বিপদের সময় দায় এড়াচ্ছে কেন্দ্রীয় সরকার। ১৮ বছরের ঊর্ধ্বে টিকা দেওয়ার এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে দেরিতে’। মমতা লিখেছেন, ‘গত মাসের ২৪ তারিখে আমি একটা চিঠি দিয়েছিলাম কেন্দ্রকে। অনুরোধ করেছিলাম, যাতে রাজ্য সরাসরি টিকা কিনে মানুষকে দিতে পারে তার জন্য হস্তক্ষেপ করতে। কিন্তু সেই চিঠির কোনো উত্তর পাইনি’।

ভারতের টিকা দেওয়ার প্রক্রিয়া এতদিন কেন্দ্রীয় সরকারের হাতে ছিল। তাই পশ্চিমবঙ্গের মতো রাজ্যগুলোতে টিকার জন্য দিল্লির ওপর নির্ভর করতে হচ্ছিল। মমতা লেখেন, ‘দ্বিতীয় ঢেউ সংক্রমণ যখন হু হু করে বাড়ছে, তখন কেন্দ্র অন্তঃসার শূন্য বিবৃতি দিয়ে দায়িত্ব এড়ানোর পথ নিয়েছে’।

মমতা বলেছেন, ‘কেন্দ্রীয় ঘোষণায় টিকার কার্যকারিতা, গুণমান, সরবরাহ নিয়ে সমস্যা সমাধানের কোনো পথ দেখানো হয়নি, রাজ্য কতো দামে টিকা কিনতে পারবে, সে ব্যাপারে কিছু বলা হয়নি। আমাদের আশঙ্কা, এই ঘোষণার ফলে বাজারে অসাধু প্রবণতা দেখা যেতে পারে, যা সাধারণ মানুষের টিকা কেনার ক্ষেত্রে বাধা হয়ে দাঁড়াতে পারে’। এরপর মমতা লেখেন, ‘এখন বাজারে টিকা অমিল। দ্রুত এর সমাধানের ব্যবস্থা গ্রহণ করা উচিত। যাতে প্রতিষেধক সকলেই পান’।

শেষে মমতা লেখেন, ‘আপনার কাছে আমার অনুরোধ স্বচ্ছ, বিশ্বাসযোগ্য টিকাকরণ নীতি সুনিশ্চিত করুন, যাতে দেশের সব মানুষ পান’।



সাতদিনের সেরা