kalerkantho

রবিবার। ৫ বৈশাখ ১৪২৮। ১৮ এপ্রিল ২০২১। ৫ রমজান ১৪৪২

কোভ্যাক্সিনের তৃতীয় ধাপের পরীক্ষার ফল প্রকাশ, ৮১ শতাংশ কার্যকারিতা দাবি

অনলাইন ডেস্ক   

৬ মার্চ, ২০২১ ১৩:৩২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কোভ্যাক্সিনের তৃতীয় ধাপের পরীক্ষার ফল প্রকাশ, ৮১ শতাংশ কার্যকারিতা দাবি

টিকা উৎপাদনকারী ভারতীয় প্রতিষ্ঠান ভারত বায়োটেক গত বুধবার জানিয়েছে, করোনাভাইরাসের টিকা কোভ্যাক্সিনের তৃতীয় ধাপের পরীক্ষার ফল জানা গেছে। প্রতিষ্ঠানটির দাবি, ওই টিকা ৮১ শতাংশ কার্যকর।

ভারত বায়োটেকের দাবি, কোভ্যাক্সিনের তিন ধাপের ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালে ২৫ হাজার আটশ জন স্বেচ্ছাসেবী অংশ নিয়েছেন। ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অব মেডিকেল রিসার্চ (আইসিএমআর) এর সহযোগিতায় ভারতে পরিচালিত সর্বকালের বৃহত্তম ট্রায়াল এটি।

ভারত বায়োটেক আরো জানিয়েছে, কোভ্যাক্সিনের টিকার কোনো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নেই। তৃতীয় পর্যায়ের ট্রায়ালের অন্তর্বর্তীকালীন ফলাফলে দেখা গেছে, এটি ৮১ শতাংশ কার্যকর। 

ভারত বায়োটেকের চেয়ারম্যান এবং ব্যবস্থাপনা পরিচালক কৃষ্ণা ইলা বলেন, প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় ধাপের পরীক্ষার জন্য প্রায় ২৭ হাজার মানুষ অংশ নিয়েছে। তাদের ওপর টিকা প্রয়োগের তথ্য বিশ্লেষণ করেই আমরা ফল প্রকাশ করেছি।
 
এর আগে চলতি বছরের ৩ জানুয়ারি জরুরি ভিত্তিতে ভারত বায়োটেককে করোনা টিকা ব্যবহারের অনুমোদন দিয়েছেন ড্রাগস কন্ট্রোলার জেনারেল অব ইন্ডিয়া। 

ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের ভিত্তিতে ওই সময় করোনার প্রতিষেধক হিসেবে কোভ্যাক্সিন সামনের সারির কর্মীদের শরীরে প্রয়োগ করা হয়।

ভারত বায়োটেকের হায়দরাবাদের সদর দপ্তর টিকা প্রস্তুতকারক সংস্থা জানিয়েছে যে, কোভ্যাক্সিনের তৃতীয় পর্যায়ের ট্রায়ালে ২৫ হাজার আটশ জন স্বেচ্ছাসেবক অংশগ্রহণ করেছেন। অধিকাংশ স্বেচ্ছাসেবকের শরীরে অ্যান্টিবডি তৈরি হয়েছে। তারা টিকা নেওয়ার পর ভালো আছেন, কোনো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়াও নেই। টিকার কার্যকারিতা প্রায় ৮১ শতাংশ।

টিকা প্রস্তুতকারক সংস্থা ভারত বায়োটেকের প্রত্যাশা, করোনার প্রতিষেধক হিসেবে শিশুদের শরীরেও কোভ্য়াক্সিন দেওয়া যাবে। এরই মধ্যে বিশেষজ্ঞ কমিটি ভারত বায়োটেককে তাদের টিকার কার্যকারিতার নথি জমা দেওয়ার কথা বলেছে।

সূত্র: ইন্ডিয়া টুডে, ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা