kalerkantho

মঙ্গলবার । ৩০ চৈত্র ১৪২৭। ১৩ এপ্রিল ২০২১। ২৯ শাবান ১৪৪২

ভারতে 'সম্মান রক্ষার নামে' তরুণীকে হত্যা

অনলাইন ডেস্ক   

৫ মার্চ, ২০২১ ১৪:৪৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ভারতে 'সম্মান রক্ষার নামে' তরুণীকে হত্যা

ভারতের উত্তরপ্রদেশে মেয়ের প্রেমের সম্পর্ক মেনে নিতে না পেরে তাকে পৃথিবী থেকে সরিয়ে দিয়েছেন এক বাবা।  কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরা এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ১৭ বছর বয়সী কিশোরীর সঙ্গে এক যুবকের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠেছিল। কিন্তু সেই সম্পর্ক কোনোভাবেই মেনে নিতে পারেননি মেয়েটির বাবা। পরিবারের সম্মান রক্ষার দোহাই দিয়ে মেয়েকে খুন করেছেন তিনি।

জানা গেছে, ধারালো অস্ত্র দিয়ে মেয়ের মাথা কেটে ফেলেছেন পাষণ্ড বাবা। মাথা কেটে পুলিশ স্টেশনের উদ্দেশে হাঁটা দেন তিনি। খবর পেয়ে ছুটে আসেন পুলিশ কর্মকর্তারা। গ্রেপ্তার করা হয় অভিযুক্ত ব্যক্তিকে।

ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের উত্তরপ্রদেশের হারদৌ জেলার একটি গ্রামে। গত বুধবার ঘটনাটি ঘটান কিশোরীর বাবা সর্বেশ কুমার। 

মেয়ের প্রেমের সম্পর্ক মেনে নিতে না পেরে প্রথমে ধারালো অস্ত্র দিয়ে মেয়েকে হত্যা করেন তিনি। তারপর তার মাথা কেটে কোনো রকম উত্তেজনা ছাড়া রাস্তা দিয়ে হেঁটে থানার উদ্দেশে যেতে থাকেন। একটা ব্যাগে মাথা ভরে নিয়ে যাচ্ছিলেন তিনি।

গ্রামের মানুষ বিষয়টি দেখে আঁতকে ওঠেন। সঙ্গে সঙ্গে পুলিশে খবর দেন।  খবর পেয়ে সেখানে পৌঁছে যান পুলিশের দুই কর্মকর্তা।তাদের শরীরেও কাঁপন ধরে যায় দৃশ্যটি দেখে।

পুলিশ বলছে, অভিযুক্ত ব্যক্তি সব স্বীকার করেছেন। তিনিই মেয়েকে খুন করেছেন। আর সেই মরদেহ তখনো ঘরে ছিল। 

তিনি বলেন, আমিই খুন করেছি। অন্য কেউ নেই। ঘরের দরজা বন্ধ রয়েছে। মেয়ের দেহও ঘরেই পড়ে আছে।

সূত্র: আল-জাজিরা

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা