kalerkantho

বুধবার । ৮ বৈশাখ ১৪২৮। ২১ এপ্রিল ২০২১। ৮ রমজান ১৪৪২

মিয়ানমারে ‘গাড়ি নষ্ট’ অজুহাতে বিক্ষোভকারীদের সড়ক অবরোধ

অনলাইন ডেস্ক   

১৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১৮:৩৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মিয়ানমারে ‘গাড়ি নষ্ট’ অজুহাতে বিক্ষোভকারীদের সড়ক অবরোধ

মিয়ানমারে জোরদার হচ্ছে সেনা অভ্যুত্থানবিরোধী আন্দোলন। শান্তিপূর্ণভাবে বিক্ষোভ করতে নানা কৌশল ব্যবহার করছেন প্রতিবাদকারীরা। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি সাড়া ফেলেছে ‘গাড়ি নষ্ট’ অজুহাত দেখিয়ে সড়ক অবরোধ। সেনাবাহিনীর হুমকি-ধামকি উপেক্ষা করেই বুধবার দেশটির বৃহত্তম শহর ইয়াঙ্গুনে সমবেত হন কয়েক হাজার মানুষ। এতে অংশ নেন তরুণ-বৃদ্ধ, শ্রমিক, শিক্ষক, বৌদ্ধ ভিক্ষুসহ নানা শ্রেণি-পেশার মানুষ। তাদের মধ্যে অনেকেই পোশাকের ওপর লাল ফিতা পরে এবং তিন আঙুলের স্যালুট দেখিয়ে সেনাশাসনের প্রতিবাদ জানান। একই সময় ইয়াঙ্গুনের প্রধান সড়ক এবং সেতুগুলোর ওপর হঠাৎই যানজট তৈরি হয়। তবে সেটি ছিল পুরোটাই ইচ্ছাকৃত। গাড়ি নষ্ট হয়ে গেছে বা তেল ফুরিয়ে গেছে অজুহাতে সড়কে দাঁড়িয়ে পড়ে শত শত গাড়ি।

এদিকে, মিয়ানমারে শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভকারীদের ওপর বলপ্রয়োগ করলে ‘কঠোর পরিণতি’ ভোগ করতে হবে বলে দেশটির সেনাশাসকদের হুঁশিয়ারি দিয়েছে জাতিসংঘ। এর পরপরই মঙ্গলবার সংবাদ সম্মেলন করে মিয়ানমারের জান্তা সরকার জানিয়েছে, তারা বেশি দিন ক্ষমতা ধরে রাখবে না। নির্বাচন দিয়ে বিজয়ীদের হাতে নিয়মমাফিক ক্ষমতা হস্তান্তর করা হবে বলে গ্যারান্টিও দিয়েছে দেশটির সামরিক বাহিনী। তবে নতুন নির্বাচনের নির্দিষ্ট কোনো তারিখ এখনো জানানো হয়নি। অবস্য অভ্যুত্থানের পরপরই এক বছরের জন্য জরুরি অবস্থা ঘোষণা করেছিল মিয়ানমার সেনাবাহিনী।

দেশটিতে প্রায় দু’সপ্তাহ ধরে সেনা অভ্যুত্থানের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ করছেন সাধারণ মানুষজন। এর মধ্যে বেশ কয়েকবার জনতা-পুলিশ সংঘর্ষ হয়েছে। নিরাপত্তাবাহিনী বিক্ষোভকারীদের ওপর কয়েকবার গুলি চালালেও বেশিরভাগ ক্ষেত্রে তা ছিল রাবার বুলেট। গত সপ্তাহে নেপিদোয় বিক্ষোভরত এক নারীর মাথায় গুলি লাগে। তার অবস্থা এখনও সংকটাপন্ন। 
সূত্র: সিএনএন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা