kalerkantho

রবিবার। ২২ ফাল্গুন ১৪২৭। ৭ মার্চ ২০২১। ২২ রজব ১৪৪২

পাকিস্তানে মার্কিন সাংবাদিক পার্ল হত্যায় অভিযুক্তদের মুক্তির আদেশ

অনলাইন ডেস্ক   

২৮ জানুয়ারি, ২০২১ ১৭:১৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



পাকিস্তানে মার্কিন সাংবাদিক পার্ল হত্যায় অভিযুক্তদের মুক্তির আদেশ

পার্লের প্রতিকৃতি। ছবি: রয়টার্স।

পাকিস্তানের সর্বোচ্চ আদালত যুক্তরাষ্ট্রের সাংবাদিক ড্যানিয়েল পার্ল হত্যায় অভিযুক্ত আহমেদ ওমর সাইদকে মুক্তির আদেশ দিয়েছেন। বৃহস্পতিবার তিন বিচারকের একটি প্যানেল তাকে মুক্তির আদেশ দিয়েছে বলে জানিয়েছে রয়টার্স। শুধু তাই নয়, পার্ল হত্যার সব অভিযুক্তকে মুক্তির রায় দেওয়া হয়। 

২০০২ সালে করাচিতে দ্য ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের দক্ষিণ এশিয়াবিষয়ক ব্যুরোপ্রধান পার্লকে (৩৮) অপহরণের পর হত্যার প্রধান সন্দেহভাজন ছিল শেখ। আইনজীবীদের বরাতে রয়টার্স জানিয়েছে, পাকিস্তানের সুপ্রিম কোর্ট বৃহস্পতিবার মার্কিন সাংবাদিক ড্যানিয়েল পার্লের শিরশ্ছেদ করার অভিযোগে দোষী একজনকে মুক্তির আদেশ দিয়েছেন। দেশটির সুপ্রিম কোর্টের এমন সিদ্ধান্তে মর্মাহত তার পরিবার। 

আদালতের তিনজন বিচারকের দুজনই অভিযুক্ত সব আসামিকে মুক্তির নির্দেশ দিয়েছেন বলে প্রাদেশিক অ্যাটর্নি জেনারেল সালমান তালিবুদ্দিন রয়টার্সকে জানিয়েছেন। আদালত প্যানেলের প্রধান বিচারপতি মুশির আলম আদালতের আদেশে জানিয়েছেন, শেখ ও অন্যান্য আসামিকে অবিলম্বে মুক্তি দেওয়া হবে। তবে যদি অন্য কোনো মামলায় অভিযুক্ত না হয়।

২০০১ সালের ১১ সেপ্টেম্বরে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে হামলার পর করাচিতে জঙ্গিদের নিয়ে প্রতিবেদন করতে কাজ করছিলেন পার্ল। তখনই তাকে অপহরণ করা হয়েছিল। তাকে অপহরণ করার কয়েক সপ্তাহ পর শিরশ্ছেদ করার একটি ভিডিও প্রকাশিত হয়। এর পরই বিশ্বগণমাধ্যমের শিরোনামে উঠে আসে তার হত্যাকাণ্ডের খবর।

গত বছর দেশটির হাইকোর্ট তাদের দণ্ড কমানোর আদেশ দেন। প্রথমে দেশটির একটি আদালত শেখ ও অন্যান্য আসামিদের মৃত্যুদণ্ড দেন। পরে তাদের দণ্ড কমিয়ে যাবজ্জীবন সাজা দেওয়া হয়। হাইকোর্টের পক্ষ থেকে জানানো হয়, প্রমাণের অভাবে তাদের দণ্ড কমানো হয়। দণ্ড কমানো পর পার্লের বাবা-মা সুপ্রিম কোর্টে সেই সিদ্ধান্তকে চ্যালেঞ্জ জানান। মৃত্যুদণ্ড বহাল রাখার জন্য আবেদন করেন তারা। কিন্তু আজ বৃহস্পতিবার তাদের মুক্তি দেওয়ার রায় দেন পাকিস্তানের সুপ্রিম কোর্ট।

সূত্র : রয়টার্স।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা