kalerkantho

রবিবার। ২২ ফাল্গুন ১৪২৭। ৭ মার্চ ২০২১। ২২ রজব ১৪৪২

ভূমধ্যসাগর সঙ্কট নিরসনে আলোচনায় বসছে তুরস্ক ও গ্রিস

অনলাইন ডেস্ক   

২৫ জানুয়ারি, ২০২১ ১৮:১৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ভূমধ্যসাগর সঙ্কট নিরসনে আলোচনায় বসছে তুরস্ক ও গ্রিস

ভূমধ্যসাগরে তেল ও গ্যাসের অনুসন্ধান নিয়ে সৃষ্ট দ্বন্দ্ব নিরসন এবং সমুদ্রসীমা নির্ধারণের লক্ষ্যে পাঁচ বছর পর তুরস্ক ও গ্রিস আলোচনায় বসেছে। তুরস্কের ইস্তাম্বুল শহরে আজ সোমবার এ আলোচনা শুরু হয়। দু'দেশের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে চলে আসা দ্বন্দ্ব অবসানের লক্ষ্যে তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর মেভলুত চাভুসওগ্লূ সরাসরি আলোচনায় বসার জন্য গ্রিসের পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন। তার ধারাবাহিকতায় এ আলোচনা অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

গত সপ্তাহে বেলজিয়ামের রাজধানী ব্রাসেলসে ইউরোপীয় ইউনিয়নের শীর্ষ পর্যায়ের নেতাদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন তুর্কি পররাষ্ট্রমন্ত্রী। সে সময় গ্রিসের পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে আলোচনায় বসার আমন্ত্রণ জানান চাভুসওগ্লু। পাঁচ বছর পর দুই দেশ এ ধরনের আলোচনায় বসল। ২০১৬ সালে দুপক্ষ সর্বশেষ আলোচনা করেছিল।

তুরস্ক পূর্ব ভূমধ্যসাগরীয় অঞ্চলে তলদেশে তেল ও গ্যাসের সন্ধানের জন্য ভূতাত্বিক সমীক্ষা জাহাজ অরুক রেসের সঙ্গে একটি ছোট নৌ বহর পাঠায়। এরপর গত আগস্টে গ্রিস ও তুরস্ক সামরিক সংঘাতের দ্বারপ্রান্তে পৌছায়। 

তুরস্কের প্রতিরক্ষামন্ত্রী হুলুসি আকার গত শনিবার বলেন, "গ্রিসের সঙ্গে আলোচনায় আমরা আশা করি যে অধিকার, আইন এবং ন্যায়বিচারের কাঠামোর মধ্যে বিষয়গুলি আলোচনা করা হবে। এবং সেগুলির সমাধান পাওয়া যাবে বলেও আশা করেন তিনি।

সোমবার থেকে শুরু হওয়া আলোচনাটি অনানুষ্ঠানিক এবং অ-বাধ্যবাধকতাপূর্ণ, তবে শেষ পর্যন্ত একটি চুক্তির ফলস্বরূপ আলোচনার একটি আনুষ্ঠানিকতা হতে পারে। এছাড়া হেগের আন্তর্জাতিক আদালতের বিচার বিভাগের (আইসিজে) কাছে বিচার চাইতে একটি চুক্তি হতে পারে।

তুরস্ক ও গ্রিসের মধ্যকার এই আলোচনাকে স্বাগত জানিয়েছেন ইউরোপীয় কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট চার্লস মিশেল। তিনি বলেন, দু'দেশের মধ্যকার দ্বন্দ্ব নিরসনের এই উদ্যোগকে ইউরোপীয় ইউনিয়ন স্বাগত জানায়। তবে এই আলোচনায় বড় ধরনের কোন অগ্রগতি আসবে বলে মনে হয় না। কারণ ন্যাটো জোটের সদস্য গ্রিস এবং তুরস্ক গত সপ্তাহেও বাকবিতণ্ডায় জড়িয়েছে।

সূত্র: আলজাজিরা।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা