kalerkantho

শনিবার । ১৪ ফাল্গুন ১৪২৭। ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১। ১৪ রজব ১৪৪২

মুক্তিযুদ্ধের ৫০ বছর পূর্তি

ভারতের প্রজাতন্ত্র দিবসে কুচকাওয়াজের সম্মুখভাগে থাকবে বাংলাদেশ

অনলাইন ডেস্ক   

২৪ জানুয়ারি, ২০২১ ২০:৩৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ভারতের প্রজাতন্ত্র দিবসে কুচকাওয়াজের সম্মুখভাগে থাকবে বাংলাদেশ

বাংলাদেশের তিন বাহিনী দেশটির মুক্তিযুদ্ধের ৫০ বছর পূর্তি উপলক্ষে নয়াদিল্লিতে ভরতের বার্ষিক প্রজাতন্ত্র দিবসের কুচকাওয়াজের সম্মুখভাগে থাকবে। বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সৈনিক, বাংলাদেশ নৌবাহিনীর নাবিক এবং বাংলাদেশ বিমান বাহিনীর বিমান যোদ্ধাদের সমন্বয়ে গঠিত এই দলের নেতৃত্ব দেবেন মোহতসিম হায়দার চৌধুরী।

মোহতসিম হায়দার চৌধুরী জানান, “বাংলাদেশ সেনাবাহিনী তার সেনাবাহিনী দলের নেতৃত্বে থাকবে। প্রথম ছয় সারিতে থাকবে তারা। এরপর যথাক্রমে দুটি নৌ বাহিনীর সারি ও দুটি বিমান বাহিনীর সারি থাকবে। কুচকাওয়াজ শেষে সমন্বিত কন্টিনজেন্ট আগামী ৩০ জানুয়ারি দেশে ফিরবে। আমরা কোভিড -১৯ এর সমস্ত নিয়ম অনুসরণ করছি, বলেন তিনি।

আগামী ২৬ জানুয়ারি ভারতের প্রজাতন্ত্র দিবস। করোনা মহামারি পরিস্থিতিতে এবার কোনো বিদেশি রাষ্ট্রপ্রধান উপস্থিত থাকবে না। তবে নয়াদিল্লিতে অনুষ্ঠিত প্যারেডে অংশ নেবে বাংলাদেশের তিন বাহিনীর সদস্যরা।

ভারতীয় সংবাদসংস্থা এএনআই-এর প্রতিবেদনে বলা হয়, প্রজাতন্ত্র দিবসের প্যারেডের প্রথম দশ সারির নেতৃত্ব দেবে বাংলাদেশের সেনারা। বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী উপলক্ষে বাংলাদেশের সেনারা এই প্যারেডে অংশ নেবেন বলে জানা গেছে। অনুষ্ঠিতব্য কুচকাওয়াজে অংশ নেওয়ার উদ্দেশ্যে সেনা, নৌ ও বিমান বাহিনীর সমন্বয়ে গঠিত বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনীর ১২২ সদস্যের একটি সমন্বিত কন্টিনজেন্ট ইতমধ্যে ভারতের রাজধানী দিল্লিতে পৌঁছেছে। 

উল্লেখ্য, ভারতের ইতিহাসে দ্বিতীয় দেশ হিসেবে বাংলাদেশ দেশটির প্রজাতন্ত্র দিবসের কুচকাওয়াজে অংশ নিতে যাচ্ছে। তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তান হিসাবে পরিচিত বাংলাদেশ একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধের পরে একটি স্বাধীন জাতি হিসাবে আত্মপ্রকাশ করে। ততকালীন বাংলাদেশের ছাত্র, আইনজীবী এবং সাধারণ নাগরিকদের সমন্বয়ে গঠিত মুক্তিবাহিনীর সঙ্গে সেই যুদ্ধে ভারতীয় সেনাবাহিনী পাশাপাশি লড়াই করেছিল। বাংলাদেশ সরকার যুদ্ধে ভারতের ভূমিকার জন্য ভারতীয় সশস্ত্র বাহিনীর বেশ কয়েকজনকে মরণোত্তর সম্মান জানিয়েছে।

সূত্র: এনডিটিভি, এএনআই।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা