kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৪ ফাল্গুন ১৪২৭। ৯ মার্চ ২০২১। ২৪ রজব ১৪৪২

স্পিকারের ল্যাপটপ চুরি করা ট্রাম্প-সমর্থক গ্রেপ্তার

অনলাইন ডেস্ক   

১৯ জানুয়ারি, ২০২১ ২০:৩২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



স্পিকারের ল্যাপটপ চুরি করা ট্রাম্প-সমর্থক গ্রেপ্তার

যুক্তরাষ্ট্রের ক্যাপিটল হিলে ট্রাম্পপন্থীদের বিক্ষোভের দিন প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসির অফিস থেকে ল্যাপটপ ও হার্ড ড্রাইভ চুরি করা ট্রাম্প-সমর্থক রাইলি উইলিয়ামসকে গ্রেপ্তার করেছে মার্কিন নিরাপত্তা বাহিনী। ওই ল্যাপটপটি তিনি রাশিয়ার গোয়েন্দা বাহিনীর কাছে বিক্রি করতে চেয়েছিলেন- এমন অভিযোগে ইতোমধ্যে তদন্ত শুরু করেছে দেশটির কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা এফবিআই।

হরানো ল্যাপটপের সন্ধান করতে গিয়ে প্রথমে এক যুবকে আটক করে দেশটির পুলিশ। তারপর সেই যুবকের দেওয়া তথ্য থেকে গতকাল সোমবার রাইলি জুন উইলিয়ামস নামের এক নারীকে গ্রেপ্তার করেছে মার্কিন পুলিশ। সহিংস ও অবৈধভাবে কংগ্রেস ভবনে প্রবেশ এবং বিশৃঙ্খল আচরণের অভিযোগ আনা হয়েছে তার বিরুদ্ধে। গত রবিবার আদালতে জমা দেওয়া হলফনামায় এফবিআইয়ের এক এজেন্ট এ তথ্য জানিয়েছেন।

পার্লামেন্ট ভবনে ট্রাম্প-সমর্থকদের তাণ্ডবের পর বেশ কিছু ইলেক্ট্রনিকস সরঞ্জামও খোয়া যায়। দেশটির ভারপ্রাপ্ত অ্যাটর্নি মাইকেল শেরউইনের মতে, গুরুত্বপূর্ণ সরঞ্জামগুলো চুরি হওয়া জাতীয় নিরাপত্তার জন্য হুমকির সামিল।

ডিসির জেলা আদালতে জমা দেওয়া হলফনামায় বলা হয়েছে, সম্প্রতি এফবিআই একটি সূত্রের সন্ধান পায়, যে নিজেকে রাইলি উইলিয়ামসের ‘রোমান্টিক সঙ্গী’ হিসেবে দাবি করেছেন। সূত্রটি বলেছে, রাইলি কম্পিউটারটি রাশিয়ায় থাকা তার এক বন্ধুর কাছে পাঠাতে চেয়েছিলেন, যে ডিভাইসটি রুশ গোয়েন্দা সংস্থা এসভিআরের কাছে বিক্রি করে দিত।

সূত্রের কথায়, কম্পিউটারটি রাশিয়ায় পাঠানোর পরিকল্পনা অজ্ঞাত কোনো কারণে ভেস্তে যায়। ডিভাইসটি হয়তো এখনো রাইলির কাছেই রয়েছে, নাহয় তিনি সেটি নষ্ট করে ফেলেছেন বলে জানান তিনি। 

এফবিআইয়ের তথ্যমতে, দাঙ্গার পরপরই রাইলি উইলিয়ামস পেনসিলভানিয়ার হ্যারিসবার্গে পালিয়ে যান। এর পরপরই বন্ধ করে দেন ফোন নম্বরসহ সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টগুলো।

ক্যাপিটলে হামলার দু’দিন পর ন্যান্সি পেলোসির মুখপাত্র ড্রিউ হ্যামিল জানিয়েছিলেন, স্পিকারের অফিস থেকে প্রেজেন্টেশনের জন্য ব্যবহৃত একটি ল্যাপটপ হারিয়ে গেছে। তবে রাইলির কাছে থাকা ল্যাপটপটি সেটাই কি না তা এখনো নিশ্চিত নয়।

সূত্র: রয়টার্স।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা