kalerkantho

বুধবার। ৬ মাঘ ১৪২৭। ২০ জানুয়ারি ২০২১। ৬ জমাদিউস সানি ১৪৪২

মুহাম্মদ আলী জিন্নাহ'র নামে তৈরি হলো মদ

অনলাইন ডেস্ক   

৪ ডিসেম্বর, ২০২০ ১২:৪৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মুহাম্মদ আলী জিন্নাহ'র নামে তৈরি হলো মদ

পাকিস্তান রাষ্ট্রের প্রতিষ্ঠাতা মুহাম্মদ আলী জিন্নাহ'র নামে এবার মদের বোতলের নাম রাখা হয়েছে। ইসলামে নিষিদ্ধ জিনিস পুল বিলিয়ার্ড, চুরুট, শূকরের মাংস, স্কচ, হুইস্কি এবং গিন জিন্নাহ উপভোগ করেছেন দাবি করে এই নামকরণ করা হয়। তবে ইংরেজিতে জিন্নাহ নাম 'জে' বর্ণ দিয়ে শুরু হলেও মদের বোতলে জিন্নাহ নামটি 'জি' বর্ণ দিয়ে লেখা।

টুইটারে একজন ব্যবহারকারী গিন নামক মদের বোতলের পরিবর্তিত নাম 'জিন্নাহ' সম্বলিত একটি ছবি পোস্ট করেছেন। সেই ছবিতে থাকা বোতলের লেবেলে লেখা রয়েছে, ইন দ্য মেমরি অব দ্য ম্যান অব প্লেজার হু হি ওয়াজ: জিন্নাহ।

সেই বোতলের লেবেল কিংবা ছবিটির ব্যাপারে সত্যতা যাচাই করা যায়নি। তবে ভারতীয় বিভিন্ন গণমাধ্যমে এ ব্যাপারে প্রতিবেদন প্রকাশ হয়েছে। 

মুহাম্মদ আলী জিন্নাহ ১৮৭৬ সালের ২৫ ডিসেম্বর ব্রিটিশ শাসনামলে করাচিতে জন্মগ্রহণ করেন। বর্তমানে এটি পাকিস্তানের অন্তর্ভূক্ত।

মদের বোতলটির লেবেলে লেখা আছে,  মুহাম্মদ আলী জিন্নাহ পাকিস্তানের প্রতিষ্ঠাতা ছিলেন, ১৯৪৭ সালে ধর্ম নিরপেক্ষ রাষ্ট্র হিসেবে এর যাত্রা শুরু।

এরপর লেখা হয়েছে, কয়েক দশক পর চার তারকা জেনারেল মুহাম্মদ জিয়া-উল-হক ১৯৭৭ সালে তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী জুলফিকার আলী ভুট্টোর ক্ষমতা কেড়ে নেন। ওয়াশিংটন ডিসি সমর্থিত একটি সামরিক স্বৈরশাসক দ্বারা দেশটি চালানো হচ্ছিল এবং এমন এক ঝামেলাপূর্ণ স্থানে পরিণত করা হয়েছিল, যেখানে তিনি (মুহাম্মদ জিয়া-উল-হক) এবং কিছু ধর্মীয় নেতারা তাদের নীলনকশা বাস্তবায়ন করেছিলেন।

এরপর আরো লেখা আছে, মুহাম্মদ আলী জিন্নাহ কখনোই অনুমোদন না দিলেও নিজে পুল বিলিয়ার্ড, চুরুট, শূকরের মাংসের সস, দারুণ স্কচ, হুইস্কি এবং গিন উপভোগ করেছেন। সে কারণে জিন্নাহর স্মরণে গিন নামক মদের নাম রাখা হয়েছে জিন্নাহ।

এদিকে মদ ও জুয়া ইসলামে হারাম। হারাম আরবি শব্দ, যার অর্থ নিষিদ্ধ। ধর্মীয় গ্রন্থ কুরআন এবং হাদিসে হারাম জিনিসের ব্যাপারে নিষেধাজ্ঞার কথা উল্লেখ রয়েছে। 

কোনো কিছু হারাম বিবেচনা করা হলে, তা যত ভালো উদ্দেশ্যেই করা হোক না কেন কিংবা যতটা সম্মান জানানোর জন্যই হোক, তা নিষিদ্ধই থেকে যায়। এ বাপারে এরই মধ্যে পাকিস্তানে টুইটার ব্যবহারকারীরা প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছেন।

সূত্র: এএনআই, বিজনেস ওয়ার্ল্ড

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা