kalerkantho

বুধবার । ১৩ মাঘ ১৪২৭। ২৭ জানুয়ারি ২০২১। ১৩ জমাদিউস সানি ১৪৪২

দক্ষিণ কোরিয়ায় আটকে থাকা অর্থ ফেরত চায় ইরান

অনলাইন ডেস্ক   

১ ডিসেম্বর, ২০২০ ১০:০২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



দক্ষিণ কোরিয়ায় আটকে থাকা অর্থ ফেরত চায় ইরান

দক্ষিণ কোরিয়ায় আটকে থাকা অর্থ অবিলম্বে ফেরত চেয়েছে ইরান। ইরানের সংসদ- মজলিসে শুরায়ে ইসলামীর জাতীয় নিরাপত্তা ও পররাষ্ট্রনীতি বিষয়ক কমিশনের প্রধান মুজতবা জুন্নুরি দক্ষিণ কোরিয়ার প্রতি এ আহ্বান জানিয়েছেন।

ইরানের কাছ থেকে তেলসহ অন্যান্য পণ্য আমদানি করার পর গত কয়েক বছরে মার্কিন নিষেধাজ্ঞার কারণে ইরানের কাছে অর্থ পরিশোধ করতে পারেনি দক্ষিণ কোরিয়া। এ কারণে দক্ষিণ কোরিয়ায় তেহরানের শত শত কোটি ডলার আটকা পড়ে আছে।

জুন্নুরি গতকাল সোমবার এক ভিডিও কনফারেন্সে দক্ষিণ কোরিয়ার পার্লামেন্টের পররাষ্ট্র বিষয়ক কমিশনের প্রধান সং ইউং গিলের সঙ্গে আলাপ করার সময় এ আহ্বান জানান। 

জুন্নুরি বলেন, প্রাকৃতিক সম্পদে ভরপুর একটি দেশ ইরান। দক্ষিণ কোরিয়ার বহু প্রয়োজন তেহরানের পক্ষে মেটানো সম্ভব। ইরানের বাজার দক্ষিণ কোরিয়ার অর্থনীতি বিকাশেরও একটি ভালো ক্ষেত্র হতে পারে বলেও জানান তিনি।

জুন্নুরি মনে করেন, ইরান ও দক্ষিণ কোরিয়ার ঘনিষ্ঠ সম্পর্ককে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে মার্কিন প্রশাসন।  দুটি দেশের উচিত তাদের মধ্যকার সম্পর্ককে ক্ষতিগ্রস্ত করার তৃতীয় পক্ষের প্রচেষ্টা প্রতিহত করা। 

তিনি আরো বলেন, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ইরানকে শাস্তি দেওয়ার জন্য নিজের দেশের অভ্যন্তরীণ আইনকে সারা বিশ্বের ওপর চাপিয়ে দিয়ে বিশ্বসমাজকে অপমান করেছেন।

দক্ষিণ কোরিয়ার পার্লামেন্টের পররাষ্ট্র বিষয়ক কমিশনের প্রধান সং ইয়ং গিল বলেন, ইরানের সঙ্গে দক্ষিণ কোরিয়ার ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের কারণে কিছুটা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। নবনির্বাচিত মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ক্ষমতা গ্রহণ করার পর তেহরান-সিউল অর্থনৈতিক ও রাজনৈতিক সম্পর্কের উন্নতি হবে।

দক্ষিণ কোরিয়ার এই প্রভাবশালী সংসদ সদস্য সাম্প্রতিক হামলায় ইরানের পরমাণুবিজ্ঞানী মোহসেন ফাখরিজাদ হত্যাকাণ্ডের তীব্র নিন্দা জানিয়ে বলেন, এটি একটি বড় ধরনের অপরাধযজ্ঞ।

সূত্র : পার্স টুডে। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা