kalerkantho

রবিবার । ১০ মাঘ ১৪২৭। ২৪ জানুয়ারি ২০২১। ১০ জমাদিউস সানি ১৪৪২

ইথিওপিয়ার গৃহযুদ্ধ কি অচিরেই থামবে?

অনলাইন ডেস্ক   

২৮ নভেম্বর, ২০২০ ১৭:০৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ইথিওপিয়ার গৃহযুদ্ধ কি অচিরেই থামবে?

ইথিওপিয়ার  বিদ্রোহী তিগ্রে পিপলস লিবারেশন ফ্রন্টের (টিপিএলএফ) নিয়ন্ত্রণাধীন তিগ্রে প্রদেশের আঞ্চলিক সরকারের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করে দেশটির প্রধানমন্ত্রী আবি আহমেদ। দেশটির সেনাবাহিনী দাবি করেছে, তারা এ যুদ্ধে জয়লাভের দ্বারপ্রান্তে রয়েছেন। সেনাবাহিনীর দাবি, তিগ্রের রাজধানীর নিকটবর্তী উইক্র অঞ্চলের নিয়ন্ত্রণ তাদের হাতে। এবার তাদের লক্ষ্য রাজধানী মেকেলে। 

সেনাবাহিনীর দাবি অনুযায়ী নিয়ন্ত্রণ নেওয়া উইক্র অঞ্চলটি রাজধানী মেকেলে থেকে মাত্র ৫০ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত। সেনাবাহিনী জানিয়েছে, আগামী কয়েকদিনের মধ্যেই মেকেলের নিয়ন্ত্রণ তাদের হাতে থাকবে। এর আগে প্রধানমন্ত্রী আবি আহমেদ বলেছিলেন, তারা এ যুদ্ধের চূড়ান্ত ও শেষ পর্যায়ে রয়েছে। ২০১৯ সালে শান্তিতে নোবেলজয়ী এ প্রধানমন্ত্রী বিদ্রোহীদের আত্মসমর্পণের সুযোগ দিয়েছিলেন। কিন্তু সে সময় টিপিএলএফের পক্ষ থেকে যুদ্ধে পিছু না হটার অঙ্গীকার করা হয়। 

এদিকে, দেশটির এ গৃহযুদ্ধে এরই মধ্যে ছয় শতাধিক লোক মারা গেছে বলে অনুমান করা হচ্ছে। প্রতিবেশি সুদান ও ইরিত্রিয়ায় শরণার্থী হয়ে পালিয়ে গেছে ৪০ হাজারেও বেশি মানুষ। এখন পর্যন্ত সংঘাত কমার কোনো লক্ষণ দেখা যাচ্ছে না।  বিদ্রোহীদের পক্ষ থেকে বারবার হুমকি দেওয়া হচ্ছে। আবার কেন্দ্রীয় সরকারও তাদের যুদ্ধ চালিয়ে যাওয়ার কথা জানিয়েছে। সরকারি বাহিনী তিগ্রের অভ্যন্তরে ঢুকে ভবিষ্যতে নিয়ন্ত্রণ নেওয়ার কথা জানালেও তা কতটা সত্যি হবে তাই দেখার বিষয়। কারণ, সরকারি বাহিনীর দাবির বিপরীতে এখন পর্যন্ত বিদ্রোহীদের কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি। এছাড়া, যুদ্ধের মধ্য দিয়ে যে ক্ষত সৃষ্টি হলো তা সহজে মিটে যাবে, এমন আশা করা খুব কঠিন বলে বিশ্লেষকরা মনে করছেন। সূত্র: রয়টার্স, আল জাজিরা।  

 

 

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা