kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১৪ মাঘ ১৪২৭। ২৮ জানুয়ারি ২০২১। ১৪ জমাদিউস সানি ১৪৪২

সাবেক জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা ফ্লিনকে ক্ষমা করলেন ট্রাম্প

অনলাইন ডেস্ক   

২৬ নভেম্বর, ২০২০ ১৪:২৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সাবেক জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা ফ্লিনকে ক্ষমা করলেন ট্রাম্প

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট হিসেবে ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিদায় ঘণ্টা বেজে গেছে। শেষ মুহূর্তে এসে ক্ষমা প্রদর্শনের নজির গড়লেন তিনি। যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা মাইকেল ফ্লিনকে ক্ষমা করার কথা জানিয়েছেন ট্রাম্প।

ডোনাল্ড ট্রাম্প তার প্রশাসনের সিদ্ধান্তের কথা ঘোষণা করে টুইটারে লিখেছেন, জেনারেল মাইকেল টি ফ্লিনকে সম্পূর্ণ ক্ষমা করার ঘোষণা করতে পেরে নিজেকে সম্মানিত মনে করছি। ফ্লিন এবং তার পরিবারকে আমি শুভ কামনা জানাই। জানি আপনারা এখন খুব ভালো আছেন।

ডোনাল্ড ট্রাম্পের টুইটের প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় পতাকার ছবি, ইমোজি এবং বাইবেলের জেরেমিয়ার একটি বাণী পোস্ট করেছেন ফ্লিন। তিনি লিখেছেন, তারা তোমার বিরোধিতা করবে। কিন্তু হারাতে পারবে না। প্রভুর ঘোষণা, আমি তোমার সঙ্গে আছি এবং তোমাকে রক্ষা করব।

২০১৬ সালে মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডোনাল্ড ট্রাম্প জেতার পর রুশ হস্তক্ষেপের অভিযোগ ওঠে। ওই সময় ফ্লিন যুক্তরাষ্ট্রের তদন্তকারী সংস্থা এফবিআই-এর কাছে ট্রাম্পের নামে মিথ্য্য কথা বলেছিলেন বলে অভিযোগ উঠেছিল। 

ওই ঘটনার জেরে দায়িত্ব দেওয়ার মাত্র ২৩ দিনের মাথায় জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টার পদ থেকে তাকে সরে যেতে হয়েছিল। আদালতে ফ্লিন মিথ্যা বলার কথা স্বীকার করতেও বাধ্য হয়েছিলেন।

দোষ স্বীকারের পর ফ্লিনের সাজা ঘোষণার প্রক্রিয়া শুরু হয়। তবে বিদায়ী প্রেসিডেন্টের সৌজন্যে তিনি মুক্তি পেলেন।

মার্কিন সেনাবাহিনীর সাবেক জেনারেল ফ্লিন এক সময় কট্টর ডেমোক্র্যাট সমর্থক ছিলেন। কিন্তু ২০১৬ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আগে রিপাবলিকান ডোনাল্ড ট্রাম্পের টিমে যোগ দিয়েছিলেন তিনি। 

তার বয়ানের ভিত্তিতে তদন্তে নেমে এফবিআই আদালতে জানিয়েছিল, ২০১৬ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জনমত প্রভাবিত করার উদ্দেশ্যে মস্কোর সাহায্য নেওয়া হয়েছিল। কিন্তু ২২ মাসের বিচারবিভাগীয় তদন্তের পরে ২০১৯ সালে ট্রাম্প এবং তার সহযোগীদের নির্দোষ ঘোষণা করে আদালত।

সূত্র : বিবিসি

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা