kalerkantho

রবিবার। ৩ মাঘ ১৪২৭। ১৭ জানুয়ারি ২০২১। ৩ জমাদিউস সানি ১৪৪২

স্বাস্থ্যবিধি মেনে পর্যটকদের স্বাগত জানাতে প্রস্তুত ভূ-স্বর্গখ্যাত কাশ্মীর

অনলাইন ডেস্ক   

২৫ নভেম্বর, ২০২০ ১৪:৪১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



স্বাস্থ্যবিধি মেনে পর্যটকদের স্বাগত জানাতে প্রস্তুত ভূ-স্বর্গখ্যাত কাশ্মীর

পর্যটনশিল্প পুনরুদ্ধারের জন্য আসন্ন শীত মৌসুমকে ঘিরে প্রস্তুতি নিচ্ছে পৃথিবীর ভূ-স্বর্গখ্যাত কাশ্মীরের ট্যুর অপারেটররা। সম্প্রতি স্থানীয় করোনার সংক্রমণ কমতে থাকায় এবারের শীতে পর্যটন খাত আবার আগের রূপে ফিরে আসবে বলে আশা করছেন সংশ্লিষ্ট অপারেটররা।

ট্যুর অপারেটর শওকত বলছেন, আমরা সবাই জানি করোনার কারণে  বিশ্বব্যাপী বাণিজ্য কিভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। পরিস্থিতি উন্নতির সঙ্গে সঙ্গে আমরা আশা করছি যে পর্যটনশিল্প আগের অবস্থায় ফিরে আসবে। পর্যটনশিল্পকে পুনরুজ্জীবিত করার প্রয়োজনীয়তার ওপর জোর দিয়ে তিনি বলেন পরিস্থিতি নতুন করে আবার স্বাভাবিক হবে। শওকত আরো বলেন, আমরা ট্যুরিজম বিভাগের সঙ্গে কাজ করছি এবং আমরা রোড শো ও বাণিজ্য মেলায় অংশ নিয়ে এই খাতের উন্নতি করতে চাই। 

পর্যটন পরিচালক নিসার আহমদ ট্যুরিস্ট অপারেটরদের প্রস্তুতি সম্পর্কে সবার উদ্দেশে বলেছেন, কাশ্মীর সব স্বাস্থ্যবিধি মেনে  পর্যটকদের স্বাগত জানাতে প্রস্তুত। তিনি আরো বলেন, আমরা সব শীর্ষস্থানীয় ট্যুর অপারেটর এবং ট্যুর পরিচালকের সঙ্গে বৈঠক করছি। আসন্ন শীত মৌসুমে, আমরা ভ্রমণপ্রেমীদের জম্মু ও কাশ্মীরে আমন্ত্রণ জানাতে চাই। এদিকে কাশ্মীরের অবসর ও তীর্থযাত্রা সফর অপারেটরগুলোর চেয়ারম্যান নাসির শাহ বলেছেন, উপত্যকার মানুষ বিশেষত গুলমার্গের মতো জায়গাগুলোতে পর্যটন কার্যক্রম পুনরায় শুরু করতে আগ্রহী।

সম্প্রতি মহারাষ্ট্রের ট্যুর অ্যান্ড ট্র্যাভেল অপারেটররা জম্মু ও কাশ্মীরের পর্যটন বিভাগের সহায়তায় একটি 'আনলক কাশ্মীর পর্যটন অভিযান' শুরু করেছে। এরই জের ধরে মুম্বাইয়ের প্রায় ৭০০ জন ট্র্যাভেল অপারেটর এবং কয়েকজন লেখক ও সাংবাদিক কাশ্মীর সফরে এসেছিলেন।

পর্যটন পরিচালক আরো বলেন, মহারাষ্ট্রের এই পর্যটন প্রতিনিধি আমাদের প্রতিনিধি হয়ে উঠবে যদি তারা তাদের বন্ধুবান্ধব এবং প্রতিবেশীদেরকে কাশ্মীরের অনন্য সৌন্দর্য সম্পর্কে আরো জানায়।  এতে করে মানুষ মুগ্ধ হয়ে ভ্রমণে আগ্রহী হবে।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের দেওয়া তথ্য মতে, জম্মু ও কাশ্মীরে এখন পর্যন্ত করোনা রোগীর সংখ্যা পাঁচ হাজার ৭০০।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা