kalerkantho

বুধবার । ১৩ মাঘ ১৪২৭। ২৭ জানুয়ারি ২০২১। ১৩ জমাদিউস সানি ১৪৪২

জম্মু-কাশ্মীরে সেনার হাতে চার জঙ্গি নিহত, মেহবুবা মুফতি-ওমর আবদুল্লাহ নিশ্চুপ

অনলাইন ডেস্ক   

২৩ নভেম্বর, ২০২০ ১১:২২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



জম্মু-কাশ্মীরে সেনার হাতে চার জঙ্গি নিহত, মেহবুবা মুফতি-ওমর আবদুল্লাহ নিশ্চুপ

জম্মু-কাশ্মীরে আসন্ন জেলা উন্নয়ন পরিষদের ভোটের আগে ভারতের আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর হাতে মারা পড়েছে পাকিস্তানভিত্তিক জইশ-ই-মুহাম্মদের চার সদস্য। নাগরোতা এলাকার কাছে সেনা অভিযানে তারা মারা যায়।

এ ঘটনায় জম্মু-কাশ্মীরের মূলধারার কয়েকটি দলের নেতারা এবং ন্যাশনাল কনফারেন্স ও পিডিপি কোনো প্রতিক্রিয়া না জানিয়ে নীরবতা পালন করছেন।

ভারতের সেনাবাহিনীর বড় ধরনের এ সফলতায় ন্যাশনাল কনফারেন্সের নেতা ওমর আবদুল্লাহ এবং পিডিপি নেতা মেহবুবা মুফতি এখন পর্যন্ত কোনো টুইট করেননি। তাঁদের সহযোগীরাও নীরবতা ভাঙছেন না।

এদিকে জম্মু ও কাশ্মীরে তৃণমূল পর্যায়ে গণতান্ত্রিক চর্চাকে দাবিয়ে দেওয়ার চক্রান্তকে পরাস্ত করতে, সন্ত্রাসীদের সর্বনাশা কর্মকাণ্ড ও ধ্বংসযজ্ঞ রোধে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সাফল্যের প্রশংসা করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

মোদি এক টুইট বার্তায় উল্লেখ করেন, পাকিস্তানভিত্তিক সন্ত্রাসবাদী সংগঠন জইশ-ই-মুহাম্মদের অন্তর্ভুক্ত চার সন্ত্রাসীকে প্রতিরোধ করা এবং তাদের সঙ্গে বিশাল আকারের অস্ত্র ও বিস্ফোরকের উপস্থিতি ইঙ্গিত দেয় যে বড় ধরনের সর্বনাশ ও ধ্বংসযজ্ঞ চালানোর তাদের প্রচেষ্টা আবারও ব্যর্থ হয়েছে।

মোদি আরো উল্লেখ করেন, আবারও জম্মু-কাশ্মীরে তৃণমূল পর্যায়ের গণতান্ত্রিক চর্চাকে কেন্দ্র করে আমাদের সুরক্ষা বাহিনী  চূড়ান্ত সাহসী এবং পেশাদারিত্ব দেখিয়েছে। তাদের সতর্কতার জন্য ধন্যবাদ, তারা একটি খারাপ চক্রান্তকে পরাজিত করেছে।

জানা গেছে, গত ১৯ নভেম্বর জম্মু-কাশ্মীরের নাগরোতার বান টোল প্লাজার পাশে অভিযান চালিয়ে জইশ-ই-মুহাম্মদের চার সদস্যকে হত্যা করে ভারতের সেনাবাহিনী। তাদের কাছ থেকে বিপুল পরিমাণ অস্ত্রও উদ্ধার করা হয়েছে।

সূত্র : এএনআই।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা