kalerkantho

বুধবার । ১০ অগ্রহায়ণ ১৪২৭। ২৫ নভেম্বর ২০২০। ৯ রবিউস সানি ১৪৪২

পাকিস্তানে পিআইডিএ অধ্যাদেশ নিয়ে প্রশ্ন তুলছে পিপলস পার্টি

অনলাইন ডেস্ক   

২৭ অক্টোবর, ২০২০ ১৬:২১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



পাকিস্তানে পিআইডিএ অধ্যাদেশ নিয়ে প্রশ্ন তুলছে পিপলস পার্টি

করাচির দক্ষিণাঞ্চলের বুন্দল ও ভুড্ডো দ্বীপপুঞ্জের উন্নয়ন পরিকল্পনার জন্য পাকিস্তান দ্বীপপুঞ্জ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (পিআইডিএ) অধ্যাদেশ নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে দেশটির অন্যতম বিরোধী দল পাকিস্তান পিপলস পার্টি (পিপিপি)। অধ্যাদেশটি কেন সংসদে তোলা হয়নি, সে বিষয়ে প্রশ্ন তুলছেন দলটির নেতারা। 

দ্য নিউজ ইন্টারন্যাশনাল জানিয়েছে, পিপিপির সংসদীয় বিষয়ক নেতা শেরি রেহমান বলেছেন, সংসদের উভয় কক্ষে এটি নিয়ে বৈঠক হয়েছে। তবে সংসদে এ আইনটি তোলা হয়নি। সংসদে এই অধ্যাদেশটি না তোলা মানে এটি নিয়ে স্পষ্টতই অসৎ উদ্দেশ্য রয়েছে। শেরি রেহমান বলেছেন, এটি হলো সিন্ধুর জমি দখল করার একটি চেষ্টা এবং পাকিস্তানের সংবিধানের স্পষ্ট লঙ্ঘন। আদিবাসীদের অধিকার রক্ষায় সব বিরোধী দল ঐক্যবদ্ধ। 

পাকিস্তান সংবিধানের ১৭২ নম্বর অনুচ্ছেদে স্পষ্ট করে বলা আছে, যদি কোনো সম্পত্তি প্রদেশে অবস্থিত থাকে, সম্পত্তির কোনো প্রাপ্য মালিক না থাকে, তাহলে সেই সম্পত্তির মালিকানা প্রদেশ সরকারের ওপর ন্যস্ত থাকবে বলে জানিয়েছেন তিনি। দ্বীপপুঞ্জগুলো সিন্ধুর অন্তর্ভুক্ত। আর এই অধ্যাদেশটি হলো সিন্ধুর উদ্বেগ বাড়ানোর ক্ষেত্রে ফেডারেল সরকারের ভয়ানক প্রচেষ্টা। 

সম্প্রতি স্থানীয়দের ইচ্ছার বিরুদ্ধে দ্বীপপুঞ্জকে সংযুক্ত করার সরকারি সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে করাচির সিন্ধু গভর্নর হাউসের বাইরে বিক্ষোভকারীরা বিক্ষোভ করেছেন। সিন্ধু তারাকি পাসান্দ পার্টি এই বিক্ষোভের আয়োজন করেছিল। হাজার হাজার মানুষ, সিন্ধুর লেখক, কবি, জাতীয়তাবাদী, বুদ্ধিজীবীরা দ্বীপপুঞ্জ দখল করার নিন্দা করেছেন।

সূত্র : জাস্ট আর্থ নিউজ।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা