kalerkantho

বুধবার । ১০ অগ্রহায়ণ ১৪২৭। ২৫ নভেম্বর ২০২০। ৯ রবিউস সানি ১৪৪২

ভিয়েতনামে ‘সর্বনাশা’ বন্যা-ভূমিধসে কমপক্ষে ১০৫ জনের মৃত্যু

অনলাইন ডেস্ক   

২০ অক্টোবর, ২০২০ ১৮:০৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ভিয়েতনামে ‘সর্বনাশা’ বন্যা-ভূমিধসে কমপক্ষে ১০৫ জনের মৃত্যু

কয়েক সপ্তাহের ভারি বর্ষণে সৃষ্ট বন্যা ও ভূমিধসে ভিয়েতনামে কমপক্ষে ১০৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। সর্বনাশা বন্যার কবলে পড়ে দেশটির মধ্যাঞ্চলের আরো প্রায় ৫০ লাখ মানুষ জলাবদ্ধ অবস্থায় দিন কাটাচ্ছে। এমনটাই জানিয়েছে কাতারভিত্তিক গণমাধ্যম আল-জাজিরা।

আল-জাজিরার প্রতিবেদনে জানা যায়, বন্যায় কমপক্ষে এক লাখ ৭৮ হাজার বাড়ি ডুবে গেছে। প্রায় সাত হাজার হেক্টর ফসলের ক্ষতি হয়েছে। প্রায় ছয় লাখ ৯০ হাজার মুরগি ও পশু মারা গেছে বা স্রোতে ভেসে গেছে।

রয়টার্সের বরাত দিয়ে আলা-জাজিরা জানিয়েছে, বন্যা ও ভূমিধসে নিহতদের মধ্যে দেশটির সেনাবাহিনীর কয়েকজন সদস্যও রয়েছেন। গত সপ্তাহে দেশটির একটি সেনা ব্যারাক ভূমিধসে চাপা পড়ায় কয়েকজন সেনা নিহত হন। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত ২৭ জন নিখোঁজ রয়েছেন; যাদের ১৫ জন নির্মাণশ্রমিক।

দেশটির রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনগুলোতে দেখা গেছে, কোয়াং বিন প্রদেশে লোকেরা ছাদে বসে উদ্ধারকারীদের সাহায্যের জন্য অপেক্ষা করছে। সেখানে রাস্তাঘাট বন্ধ হয়ে গেছে বন্যার কারণে। বিদ্যুতের তারও নষ্ট হয়ে গেছে বন্যার কবলে পড়ে।

এক বয়স্কা নারী বাড়ির ছাদে থেকে ভিটিভিতে সাক্ষাৎকার দিতে গিয়ে বলেছেন, গতকাল থেকেই আমি কিছু খাইনি। আমাদের এখন কিছুই নেই। নেই খাবার, নেই ফোন। কিছুই নেই।

ভিয়েতনাম রেড ক্রস সোসাইটির সভাপতি নুগেইন থি জুয়ান থু এই বন্যাকে কয়েক দশকের সবচেয়ে খারাপ বন্যা বলে অভিহিত করেছেন। এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, আমরা যেখানেই চোখ ফেলি সেখানেই দেখি বাড়িঘর, রাস্তাঘাট এবং অবকাঠামো পানির নিচে তলিয়ে গেছে। করোনা মহামারির পর স্থানীয়রা আরো এক দুরবস্থার মধ্যে পড়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা