kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৬ কার্তিক ১৪২৭। ২২ অক্টোবর ২০২০। ৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

নিরাপত্তা আইন লঙ্ঘনের অভিযোগে হংকংয়ে গ্রেপ্তার চলছেই

অনলাইন ডেস্ক   

৩০ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ১৬:৩০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নিরাপত্তা আইন লঙ্ঘনের অভিযোগে হংকংয়ে গ্রেপ্তার চলছেই

জাতীয় নিরাপত্তা আইন বাতিলের দাবিতে হংকংয়ে বিক্ষোভ, ফাইল ছবি।

চলতি বছরের জুন মাসে চীনের আধা স্বায়ত্তশাসিত অঞ্চল হংকংয়ে জাতীয় নিরাপত্তা আইন জারি করে বেইজিং। কঠোর এই আইন বাতিলের দাবিতে রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ করেন হংকংবাসী। এ আইন ভঙ্গের অভিযোগে এখন পর্যন্ত অঞ্চলটির অন্তত ৯০ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

চীনা সংবাদমাধ্যম সাউথ চায়না মর্নিং পোস্ট (এসসিএমপি) জানায়, পুলিশ হংকংয়ের মংকক এলাকায় সরকারবিরোধী বিক্ষোভকারীদের লক্ষ্য করে মরিচের গুঁড়ো ছোড়ে।

অজ্ঞাতনামা নেতাদের অনলাইন ডাকে সাড়া দিয়ে অসংখ্য মানুষ রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ করেন। প্রায় ৫০ হাজার মানুষ রাজপথে বিক্ষোভে নামেন। এসময় তারা চিৎকার করে স্লোগান দেন, ‘হংকং স্বাধীন করো’, 'আমাদের সময় বিপ্লবের'। 

হংকংয়ের জর্ডান অঞ্চলে অসংখ্য পুলিশের সামনেই বিক্ষোভ চালিয়ে যান তারা। জর্ডানের ইটন হোটেলের সামনে সরকারবিরোধী ব্যানার হাতে বিক্ষোভ করায় লিগ অব সোশ্যাল ডেমোক্র্যাটস এর অ্যাক্টিভিস্ট লিউং কোক হুং, রাফেল ওং হোমিং এবং ফিগো চ্যান হোওনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

স্বাধীন হংকংপন্থীরা পরবর্তী মেয়াদে সংসদ সদস্যদের বাছতে তাদের ভোটাধিকার ফিরিয়ে দেওয়ার দাবিও করে এই বিক্ষোভ মিছিল থেকে। চীনপন্থী হংকং প্রশাসন জুলাইয়ের শেষদিকে করোনাভাইরাসের দোহাই দিয়ে জাতীয় নির্বাচন স্থগিত করেছে।

একজন ৬৩ বছর বয়সী বিক্ষোভকারী জানিয়েছেন, ভারী অস্ত্রসহ বিপুল সংখ্যক পুলিশ মোতায়েনের পরেও তিনি চিন্তিত নন। ইয়িম নামে এই নারী নির্বাচন স্থগিতের বিষয়ে অসন্তুষ্ট ছিলেন। তিনি বলেন, 'কেন আমাকে ভোট দিতে দিচ্ছেন না? আপনি লোকদের গণ ভাইরাস পরীক্ষা করতে দিয়েছেন, তবে কেন মানুষকে নির্বাচনে অংশ নিতে দিচ্ছেন না?।

সূত্র: এএনআই।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা