kalerkantho

মঙ্গলবার । ৪ কার্তিক ১৪২৭। ২০ অক্টোবর ২০২০। ২ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

তিয়ানানমেন বিক্ষোভের ছাত্রনেতা ঝো ফেংসুও

চীনের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে বিশ্বের উচিত ভারতকে অনুসরণ করা

অনলাইন ডেস্ক   

২২ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ১৬:৩২ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



চীনের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে বিশ্বের উচিত ভারতকে অনুসরণ করা

প্রতীকী ছবি।

চীনের সম্প্রসারণবাদী নীতিমালা মোকাবেলার জন্য ভারতের গৃহীত পদক্ষেপের প্রশংসা করেছেন 'মানবতাবাদী চীন'-এর সহ-প্রতিষ্ঠাতা ও সভাপতি এবং তিয়ানানমেন বিক্ষোভের ছাত্রনেতা ঝো ফেংসুও। একই সঙ্গে তিনি বিশ্বের অন্যান্য দেশকেও চীনকে মোকাবেলায় ভারতের পদক্ষেপগুলো অনুসরণ করা উচিত বলে মন্তব্য করেছেন।

সম্প্রতি 'ইম্পেরিয়র হ্যাজ নো ক্লথস : চায়না আন্ডার শি জিনপিং' শীর্ষক একটি ওয়েবিনারে অংশ নিয়ে সাবেক এই ছাত্রনেতা বলেন, আজ ভারতের মহান গণতন্ত্র চীনের সর্বগ্রাসী শাসনের মুখোমুখি। কিন্তু আমি ভারতের পক্ষে একটি বড় ভূমিকা দেখতে পাচ্ছি।

তিনি বলেন, প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের চীনকে মোকাবেলা করতে ভারত কী করতে পারে? আমি প্রচুর বিষয় নিয়ে গভীর উদ্বিগ্ন।

ঝো ফেংসুও বলেন, প্রথমেই আসি তাইওয়ানের সঙ্গে মিথস্ক্রিয়া নিয়ে। এটি একটি উদার ও সমৃদ্ধ গণতন্ত্র। তাইওয়ানে আমার সর্বশেষ পাঁচ ভ্রমণের একটি। এটি কত দুর্দান্ত হয়েছে, তা দেখে আশ্চর্য হয়েছি। অঞ্চলটির কোনো মিল নেই। কারণ তারা চীনের ক্ষমতাসীন দল কমিউনিস্ট পার্টিকে (সিসিপি) ভালো করেই চেনে।

তিনি বলেন, এ কারণেই তাইওয়ান কভিড-১৯-এর সময় সতর্ক ছিল এবং এটি মোকাবেলা করতে সক্ষম হয়েছে। তাদের স্বীকৃতি দরকার। আমি আশা করি, ভারত তাইওয়ানের সঙ্গে একটি আনুষ্ঠানিক কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থাপন করতে পারে। এর আগে আবার আমাদের অনেক বিনিময় হতে পারে।

এ ছাড়া আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ ইস্যু হংকং সংকট। জাতীয় নিরাপত্তা আইন সম্পর্কে চিন্তা করুন। বিশ্ব-ইতিহাসে কখনো আমরা এমন আইন দেখিনি, যা দেশের বাইরের লোকদের বিচার করতে পারে। তাই আমি আশা করি, ভারত এর অনেক কিছুই করতে পারে।

এ ছাড়া তৃতীয় ইস্যুটি হলো চীনের ফায়ারওয়াল। আমি আশা করি, এ বিষয়েও ভারত অনেক কিছু করতে পারে। কারণ টেক পাওয়ারে ভারত খুবই শক্তিশালী। আমাদের একসঙ্গে ফায়ারওয়াল প্রযুক্তি নিয়ে লড়াই করতে হবে। চীন তার প্রযুক্তি সংস্থাগুলোকে ব্যবহার করে ইন্টারনেটের ওপর একটি বাধ্যবাধকতা আরোপ করেছে, যেটা বিশ্বের অন্যান্য অংশ থেকে চীনকে সম্পূর্ণ আলাদা করে রেখেছে। এটা অনেকটা দুর্গের মতো। ইন্টারনেটকে উন্মুক্ত রাখতে আমাদের চীনের বিরুদ্ধে একসঙ্গে লড়াই করতে হবে। ফায়ারওয়াল ভাঙতে আমরা একসঙ্গে কাজ করতে পারি। এটি ব্রেন ওয়াশিংয়ের জন্য চীনা কমিউনিস্ট পার্টির একটি হাতিয়ার।

তিনি আরো বলেন, সব মিলে চীনের বিরুদ্ধে ভারত যেসব পদক্ষেপ নিয়েছে, তা প্রশংসনীয়। এ বিষয়ে বিশ্বের অন্যান্য দেশের উচিত হবে ভারতকে অনুসরণ করা।

সূত্র : জি নিউজ।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা