kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৪ আশ্বিন ১৪২৭ । ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০। ১১ সফর ১৪৪২

রাশিয়ার ভলগা নদীতে ডুবে ৪ ভারতীয় মেডিক্যাল শিক্ষার্থীর মৃত্যু

অনলাইন ডেস্ক   

১০ আগস্ট, ২০২০ ১৮:১৪ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



রাশিয়ার ভলগা নদীতে ডুবে ৪ ভারতীয় মেডিক্যাল শিক্ষার্থীর মৃত্যু

স্বপ্ন ছিল ডাক্তার হওয়ার। স্বপ্নপূরণের লক্ষ্য পাড়ি দিয়েছিলেন রাশিয়ায়। কিন্তু সেই স্বপ্ন এখন স্বপ্নই থেকে গেল ৪ ভারতীয় মেডিক্যাল শিক্ষার্থীর। তামিলনাড়ুর তিরুপুর জেলার ধারাপুরমের সাব ইন্সপেক্টরের স্বপ্ন ছিল ছেলে বিদেশ ফেরত ডাক্তার হয়ে দেশের মানুষের সেবা করবে। কিন্তু সেই ইচ্ছা ভেঙে যায়, যখন খবর আসে, রাশিয়ার নদীতে তার ছেলে ডুবে মারা গেছে। শুধু তার ছেলেই নয়, রাশিয়ায় নদীতে তলিয়ে গেছে ৪ ভারতীয় শিক্ষার্থী। তাদের মধ্যে তামিলনাড়ুর সালেম জেলার থালাইভাসালের এক সাব ইন্সপেক্টরের ছেলে, চেন্নাই ও কুড্ডালোরের দুই পরিবারেরও স্বপ্নও ভেঙে চূর্ণ বিচূর্ণ হয়ে গেছে।

ধারাপুরমের মুহাম্মদ আশিকের মৃত্যুর খবর পাওয়ার পর থেকেই জ্ঞান হারাচ্ছেন তার বাবা-মা। টাইমস অফ ইন্ডিয়াকে আশিকের বাবা জানিয়েছেন, 'আমার ছেলের ডাক্তার হবে, এটাই ছিল পরিবারের বড় স্বপ্ন। কেবলমাত্র পরিবারেই নয়, আশিক যখন খুব ছোট্ট ছিল, তখন থেকেই তার ইচ্ছে ছিল বড় হয়ে ডাক্তার হবে।'

তামিলনাড়ুর ধারাপুরমের আশিক, সাব ইন্সপেটর আনন্দের ছেলে মনোজ আনন্দ, কুড্ডালোর জেলার থিট্টাকুড়ির আর ভিগনেশ ও চেন্নাইয়ের স্টিফেন- চারজনেই ছিলেন রাশিয়ার ভলগাগ্রাদ স্টেট মেডিক্যাল ইউনিভার্সিটির শেষ বর্ষের শিক্ষার্থী।

আশিকের বাবা মুহাম্মদ রফি জানিয়েছেন, রাশিয়ার ভলগা নদীতে তলিয়ে যায় চারজনেই। পড়াশোনা শেষ করে ৬ মাস পরেই আমার ছেলের ফিরে আসার কথা ছিল। ভিগনেশের এক চাচাতো ভাই শরত জানিয়েছেন, ভিগনেশের একটি প্যাশন ছিল ডাক্তার হওয়ার। আর সেই প্যাশনেই অজানা দেশে পড়াশোনা করতে যায়।

পরিবার সূত্রে ঘটনা সম্পর্কে যা জানা গেছে তা হল, সপ্তাহান্তে ছুটি কাটাতে ভলগা নদীতে গোসল করতে যান ১০ শিক্ষার্থী। নদীতে হঠাৎ বান দেখা দিলে তাদের সকলেই ভাসিয়ে নিয়ে যায়। ১০জনের মধ্যে ৬জন ভাগ্যের জোরে বেঁচে গেছেন। কিন্তু স্রোতে ভেসে গেছে ৪ ভারতীয় শিক্ষার্থী।

শরত জানিয়েছে, ভিগনেশ বন্ধুদের বাঁচাতে নদীতে ঝাঁপ দেয়। কিন্তু তার আর ফিরে আসা সম্ভব হয়নি। নদীতে তলিয়ে যায় ভিগনেশ।

অপর শিক্ষার্থী স্টিফেন, চেন্নাইয়ের ওটারির মোহনকুমার ও বাকিয়াম দম্পতির বড় ছেলে। দোভেটন স্কুল থেকে এইচএসসি পাস করার পরই স্বপ্ন পূরণের লক্ষ্যে পাড়ি জমিয়েছিল রাশিয়াতে।

নদীতে তলিয়ে যাওয়া চার ভারতীয় মেডিক্যাল শিক্ষার্থীর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। রাশিয়া থেকে ছেলের লাশ আনার ব্যাপারে মনোজের বাবা আনন্দ ও তার পরিবার তামিলনাড়ুর মুখ্যমন্ত্রী ই কে পালানিস্বামীর সঙ্গে দেখা করেছেন। চার ভারতীয় মেডিক্যাল শিক্ষার্থীর লাশ দেশে ফেরানোর সব ব্যবস্থা সরকার করবে বলে আশ্বাস দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।

সূত্র : টাইমস অব ইন্ডিয়া।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা