kalerkantho

রবিবার। ৫ আশ্বিন ১৪২৭ । ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০। ২ সফর ১৪৪২

প্রাপ্ত বয়স্ক ইহুদিদের 'খতনা' করানোই রাশিয়ান এই সার্জনের চাকরি!

অনলাইন ডেস্ক   

৭ আগস্ট, ২০২০ ১৭:৫০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



প্রাপ্ত বয়স্ক ইহুদিদের 'খতনা' করানোই রাশিয়ান এই সার্জনের চাকরি!

ইহুদি ধর্মীয় বিশ্বাসগুলো বিশ্বে অস্বাভাবিক কিছু চাকরির সুযোগ সৃষ্টি করেছে। শোফার প্রস্তুতকারী, এট্রোগ পিকার থেকে শুরু করে মাশগিচিম- কোশার সার্টিফায়ার যাদের কাজ অন্যদের রান্না দেখা। তবে আরো উদ্ভট একটি কাজ অবশ্যই ডা. ইয়েশায়া শফিটের, যিনি প্রাপ্ত বয়স্ক ইহুদি পুরুষদের খতনা করানোর জন্য একমাত্র পেশাদার মোহেল বা খতনাকার। মুসলমান ও ইহুদিরা তাদের ধর্মীয় আচারের অংশ হিসেবেই ছেলেদের সুন্নতে খতনা করিয়ে থাকে৷ 

৫৬ বছর বয়সী সার্জন প্রতি সপ্তাহে প্রায় ১০ জন প্রাপ্ত বয়স্ক ইহুদিকে খতনা করিয়ে থাকেন। এজন্য তাকে দেশজুড়ে ভ্রমণ করতে হয়। আবার মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রেও কিছু সময় কাটান তিনি, সেখানেও ইহুদিদের খতনা করতে হয়। ব্রিস বা ব্রিট মিলাহ নামে পরিচিত ইহুদিদের আনুষ্ঠানিকভাবে খতনা করা সুন্নত, ইহুদি আইন অনুসারে ৮ দিনের বাচ্চাদের খতনা করা বাধ্যতামূলক।

গোঁড়া ধর্মাবলম্বীরা অন্য ধর্ম থেকে যারা ইহুদি ধর্মে ধর্মান্তরিত হয় তাদের ক্ষেত্রে প্রাপ্ত বয়স্ক খতনার বিধান চাপিয়ে দেয়। বিশেষ করে অর্থডক্স খ্রিস্টান থেকে ইহুদি হওয়া পুরুষদের প্রাপ্ত বয়স্ক সুন্নতে খতনা দেওয়া হয়। আবার বিভিন্ন কারণে যেসব ইহুদিদের ছোটকালে খতনা করা হয়নি তাদের প্রাপ্ত বয়স্ক খতনা করাতে হয়।

রাশিয়ায় বর্তমানে প্রাপ্তবয়স্কদের খতনা করানোর চাহিদা খুব বেশি, কারণ কমিউনিস্ট সোভিয়েত ইউনিয়নের সময়ে দেশটিতে ইহুদিদের ধর্মীয় অনুশীলন কার্যকরভাবে নিষিদ্ধ করা হয়। ফলে সে সময় অনেক ইহুদি পুরুষ খতনা করেনি। এখন তারা খতনা করে নিচ্ছেন।

রাশিয়ায় ইহুদিদে প্রধান রাব্বি (ধর্মীয় আলেম), চাদাব-লুবাভিচ যিনি ইতালিতে বেড়ে ওঠেন এবং ১৯৮৭ সালে রাশিয়ায় বসতি স্থাপন করেছিলেন, তিনি সেই সময়ের কথা স্মরণ করিয়ে দিয়ে বলেন, যখন রাশিয়ায় ইহুদিদের ধর্মীয় কার্যক্রম জোর করে বন্ধ করা হয়েছিল সে সময় ইহুদিদের গোপনে খতনা করতে হতো। এ জন্য অনেকেরই খতনা হয়নি।'

সে সময় ইহুদিদের খতনা করার জন্য মস্কোর একটি অ্যাপার্টমেন্টের ভূগর্ভস্থ একটি গোপন কক্ষে তাদের চোখ বেঁধে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে আগে থেকেই মোহাল (খতনাকারীকে মোহাল বলা হয়) অপেক্ষা করে থাকেন। পরিচয় গোপন রাখতেই এই পদ্ধতি অবলম্বন করা হয়। রাব্বি ব্যাখ্যা করেছিলেন যে, চোখ বাঁধার কারণ হল যেসব প্রাপ্ত বয়স্ক পুরুষদের স্বেচ্ছায় বা অনিচ্ছায় পরে খতনা করা হয়েছে তাদের অবস্থান এবং পরিচয় গোপন রাখা।

তবে বর্তমানে অবস্থা বদলেছে, এখন আর ইহুদিদের ধর্মীয় আচার পালনে রাশিয়ায় কোন বাঁধা দেওয়া হয় না। ফলে ইহুদিরা মোহাল পদে অভিজ্ঞ সার্জন নিয়োগ দেওয়ার প্রয়োজনীয়তা অনুভব করে। কারণ প্রাপ্ত বয়স্ক পুরুষদের খতনা দেওয়ার বিষয়টি বেশ জটিল। অভিজ্ঞ সার্জন ছাড়া এটা করা হলে বিপদের সম্ভাবনা রয়েছে।

আর এই প্রয়োজনীয়তা থেকেই ডা. ইয়েশায়া শফিটকে ১৯৯০-এর দশকে মোহাল বা খতনাকার হিসাবে নিয়োগ দেওয়া হয়। শফিট এক সময় জেরুজালেমের হাডাসাহা হাসপাতালে হ্যান্ড সার্জন হিসাবে কাজ করতেন। বর্তমানে তিনি ছাবার সঙ্গে জড়িত একটি আন্তর্জাতিক সংগঠনের সঙ্গে কাজ করছেন। এই সংগঠনটি বিশ্বব্যাপী ইহুদিদের বিনামূল্যে সুন্নতে খতনা করাতে সহায়তা করে।

সূত্র : ইসরায়েল ন্যাশনাল নিউজ।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা