kalerkantho

শনিবার । ১১ আশ্বিন ১৪২৭ । ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০। ৮ সফর ১৪৪২

সন্তান জন্ম দিতে ব্যথা পান না এই নারী

অনলাইন ডেস্ক   

৬ আগস্ট, ২০২০ ১৪:০৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সন্তান জন্ম দিতে ব্যথা পান না এই নারী

বামে ক্যামেরুন, ডানের এমিলি মেডেলি (২৪) নামে এই নারীও প্রসবে ব্যথা পাননি।

বেশিরভাগ নারী সন্তান জন্ম দেওয়ার তীব্র কষ্টের কথা ভুলতে পারেন না। কিন্তু জো ক্যামেরুন যখন প্রথমবার গর্ভবতী হন, তখন তার বয়স মাত্র ৩০ বছর। সেবার ব্যথা ছাড়াই সন্তান জন্ম দেন। এক বছর পর দ্বিতীয় সন্তানের জন্ম দিতে গিয়েও কোনো ব্যথা পাননি তিনি।

জো ক্যামেরুন বলেন, আমি অনেক বিষয়ই স্বাভাবিকভাবে নিতে পারি। নিজের শরীরের ব্যাপারে ভালো বুঝি। আর প্রসবের ব্যাপারে বলতে পারি, বাচ্চারা চাপ কমানোর জন্য যেমন মুখে আঙুল রেখে ফানি ভঙ্গি করে, সে রকম আর কি।

তিনি আরো বলেন, আমার বেলায় কোনো ব্যথা পাইনি। আমি মনে করি এটা একেবারে স্বাভাবিক একটা ব্যাপার। আমি ওই সময় বাবার ভেবেছি, এটা আমি। কিন্তু অন্য অনেক নারী ভয়ের কথা বলে। বহু মা আপনাকে বলবে, ব্যথা ছাড়া সন্তান জন্ম দেওয়াটা স্বাভাবিক ঘটনা নয়। 

কিন্তু সন্তান প্রসবে কোনো ব্যথা পাননি এই নারী। এমনকি জো ক্যামেরুনের জীবনে ব্যথা বলে কোনো শব্দ নেই। এই নারীর বয়স এখন ৭২ বছর। এমনকি তার হাত ভেঙে যাওয়ার তিন দিন পরেও ব্যথা পাননি। তবে কফির মগ তুলে নিতে কিছুটা জড়তা অনুভব করেছেন স্কটল্যান্ডের এই নারী।

তিনি বলেন, প্রায়ই আমার বিভিন্ন অঙ্গ কেটে যায়, পুড়ে যাই। কিন্তু আমি এসব ব্যাপারে কিছুই বুঝতে পারি না। বিশেষ করে ব্যথা অনুভব করি না। কেমব্রিজ ইউনিভার্সিটির গবেষকরা বলেন, একশ জনে একজন নারী সন্তান প্রসবের সময় ব্যথা পান না।  

জানা গেছে, ছয় বছর আগে ৭৩ বছর বয়সী জিমকে বিয়ে করেছেন জো ক্যামেরুন। কয়েক বছর আগে তিনি সড়ক দুর্ঘটনার শিকার হন। তার গাড়িটিকে ধাক্কা দেয় আরেক গাড়ি। কিন্তু তাতেও রাগ করেননি ক্যামেরুন। কারণ, তিনি আসলে দুর্ঘটনায় কোনো ব্যথা পাননি। অথচ তার শরীরের নানা জায়গা দিয়ে রক্ত ঝরেছে।

সূত্র : ডেইলি মেইল

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা