kalerkantho

শনিবার । ১১ আশ্বিন ১৪২৭ । ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০। ৮ সফর ১৪৪২

বৈরুত বিস্ফোরণ : শস্যগুদাম পুড়ে ছাই, খাদ্য সংকট বাড়বে লেবাননে

অনলাইন ডেস্ক   

৫ আগস্ট, ২০২০ ২০:১৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বৈরুত বিস্ফোরণ : শস্যগুদাম পুড়ে ছাই, খাদ্য সংকট বাড়বে লেবাননে

বৈরুত বন্দরে ভয়াবহ বিস্ফোরণে বিপর্যস্ত লেবানন। জারি হয়েছে দুই সপ্তাহের জরুরি অবস্থা। প্রবল বিস্ফোরণের জেরে ঘটা ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে প্রাণহানির পাশাপাশি পুড়ে ছাই হয়ে গেছে বন্দরের গুদামগুলোতে মজুদ রাখা হাজার হাজার টন খাদ্যশস্য।

বুধবার লেবাননের অর্থমন্ত্রী জানান, 'দেশের জনগণের খাদ্য সুরক্ষা নিশ্চিত করতে গেলে অন্তত তিন মাসের শস্য মজুত রাখতে হয়। কিন্তু বিস্ফোরণের জেরে বন্দরের গুদামগুলোতে মজুদ থাকা শস্যভাণ্ডার পুড়ে নষ্ট হয়ে গেছে। আমদানি করা ছাড়া এখন বিকল্প নেই। গম আমদানির প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে।'

বিস্ফোরণে পুড়ে যাওয়া বৈরুত বন্দরের গুদামগুলোতে ১ লাখ ২০ হাজার টন খাদ্যশস্য মজুদ করার ক্ষমতা রয়েছে। বিস্ফোরণের সময় বন্দরে প্রায় ১৫ হাজার টন গম মজুদ ছিল যার পুরোটাই পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। স্বস্তির বিষয় বেশ কিছু ব্যবসায়ী আগেই তাদের মাল খালাস করে নেওয়ায় কিছু শস্য রক্ষা পেয়েছে।'

মঙ্গলবার রাতে প্রচণ্ড বিস্ফোরণে কেঁপে ওঠে বৈরুত বন্দর। এখনো পর্যন্ত এই ঘটনায় মৃত্যু হয়েছে শতাধিক মানুষের। আহত হয়েছেন কয়েক হাজার। অনেকরই অবস্থা আশঙ্কাজনক থাকায় মৃতের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

দেশটির প্রেসিডেন্ট মিশেল আউন জানিয়েছেন, বৈরুত সমুদ্র বন্দরের কাছে একটি রাসায়নিক গুদাম থেকে বিস্ফোরণের সূত্রপাত। সেখানে ২ হাজার ৭৫০ টন অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট ছিল যা বোমা ও সার তৈরিতে ব্যবহৃত হয়ে থাকে। বিপদজনক রাসায়নিক উপাদান সংরক্ষণে কোন সতর্কতা অবলম্বন না করার বিষয়টি অগ্রহণযোগ্য।

সূত্র : রয়টার্স।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা