kalerkantho

রবিবার । ১২ আশ্বিন ১৪২৭ । ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০। ৯ সফর ১৪৪২

বৈরুতকে ধ্বংসস্তুপে পরিণত করা 'অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট' আসলে কী?

অনলাইন ডেস্ক   

৫ আগস্ট, ২০২০ ১৬:৫৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বৈরুতকে ধ্বংসস্তুপে পরিণত করা 'অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট' আসলে কী?

লেবাননের রাজধানী বৈরুতে ভয়াবহ বিস্ফোরণের ঘটনায় বন্দরের একটি অনিরাপদ গুদামে মজুদ হাজার হাজার টন অত্যন্ত বিপজ্জনক রাসায়নিক দ্রব্য অ্যমোনিয়াম নাইট্রেটকে সম্ভাব্য উৎস হিসেবে দেখা হচ্ছে। যে বিস্ফোরণের ধাক্কা পুরো বৈরুতজুড়ে অনুভূত হয়েছে ভূমিকম্পের মতো। মঙ্গলবারের সন্ধ্যার এই বিস্ফোরণে এখন পর্যন্ত শতাধিক মানুষের মৃত্যু এবং চার হাজারের বেশি মানুষ আহত হয়েছেন।

বিস্ফোরণের বিষয় বিস্তারিত জানিয়ে টুইট বার্তা দিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট মিশেল আউন। তিনি টুইটে জানিয়েছেন, বৈরুত সমুদ্র বন্দরের কাছে একটি রাসায়নিক গুদাম থেকে বিস্ফোরণের সূত্রপাত। সেখানে ২ হাজার ৭৫০ টন অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট ছিল যা বোমা ও সার তৈরিতে ব্যবহৃত হয়ে থাকে। বিপদজনক রাসায়নিক উপাদান সংরক্ষণে কোন সতর্কতা অবলম্বন না করার বিষয়টি অগ্রহণযোগ্য।

রাজধানীর গুরুত্বপূর্ণ অংশ প্রধান বন্দরের কাছে কীভাবে এই বিপজ্জনক দ্রব্য মজুদ করা হলো, ছয় বছর আগে জব্দ করা হলেও সেগুলো কেন ধ্বংস করা হয়নি, পর্যাপ্ত সুরক্ষা ব্যবস্থা ছাড়াই ৪০ লাখ মানুষের বৈরুতের কেন্দ্রে কেন সেগুলো এতদিন অরক্ষিত অবস্থায় থাকলো, এমন নানা প্রশ্ন তুলছেন বিশেষজ্ঞরা।

অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট আসলে কি?

তবে অনেকের মনেই প্রশ্ন এসেছে পারমাণবিক বোমার মতো ভয়াবহ বিস্ফোরণ ঘটানো এই বিস্ফোরক দ্রব্য অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট আসলে কি? অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট হচ্ছে অ্যামোনিয়া ও নাইট্রোজেনের মিশ্রণ, যা জমিতে প্রয়োগের সার তৈরির কাজে লাগে। খনিতে কাজে লাগে। আবার বোমা তৈরিতেও ব্যবহার করা হয়।  এটি এমন একটি পদার্থ যা থেকে সহজেই বিস্ফোরণ ঘটতে পারে বলে জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

রাজধানীর বৈরুতে ভয়াবহ এ বিস্ফোরণের শব্দ শোনা গেছে অন্তত দেড়শো মাইল দূর থেকে। ক্ষতিগ্রস্ত ভবনে অনেকেই আটকা পড়েন। বৈরুত শহরজুড়ে, এমনকি শহরতলীতেও ক্ষতি হয়েছে।

লেবাননের বৈরুতে ভয়াবহ বিস্ফোরণে মৃত্যু ১০০ জন ছাড়িয়েছে। আহত হয়েছেন চার হাজারের বেশি। স্থানীয় সময় মঙ্গলবার বিকেলে সমুদ্র বন্দরের কাছে বোমা তৈরিতে ব্যবহৃত রাসায়নিকের গুদামে এই বিস্ফোরণ হয়।

সূত্র: গার্ডিয়ান।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা