kalerkantho

সোমবার । ৬ আশ্বিন ১৪২৭ । ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০। ৩ সফর ১৪৪২

বৈরুত বিস্ফোরণে আমরা জড়িত নই, বলল ইসরায়েল

অনলাইন ডেস্ক   

৫ আগস্ট, ২০২০ ১১:৫১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বৈরুত বিস্ফোরণে আমরা জড়িত নই, বলল ইসরায়েল

লেবাননের রাজধানী বৈরুতে বড় ধরনের বিস্ফোরণের ঘটনার সঙ্গে কোনো ধরনের সংশ্লিষ্টতা নেই বলে জানিয়েছে ইসরায়েল। এমনকি লেবাননকে মানবিক ও চিকিৎসা সহায়তা দেওয়ার জন্য প্রস্তুতির কথাও জানিয়েছে দেশটি।

ইসরায়েলের প্রতিরক্ষা বিষয়ক মন্ত্রী বেনি গেন্জ এবং পররাষ্ট্রমন্ত্রী গাবি আশকেনাজি বলেছেন, ইসরায়েল আন্তর্জাতিক সুরক্ষা এবং কূটনৈতিক চ্যানেলগুলোর মাধ্যমে লেবাননের সঙ্গে যোগাযোগ করেছে এবং লেবানন সরকারকে চিকিৎসা ও মানবিক সহায়তার প্রস্তাব দিয়েছে।

এদিকে গতকাল মঙ্গলবার বৈরুতে ভয়াবহ বিস্ফোরণে অন্তত ৭৮ জন নিহত ও চার হাজারের বেশি মানুষ আহতের ঘটনায় লেবাননে আজ বুধবার রাষ্ট্রীয় শোক পালন করা হচ্ছে। সরকারিভাবে তিন দিন শোক পালন করা হবে।

লেবাননের প্রেসিডেন্ট মাইকেল আউন বলেছেন, দুই হাজার সাতশ ৫০ টন অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট ছয় বছর ধরে একটি গুদামে অনিরাপদভাবে সংরক্ষণ করে রাখা ছিল। সেখান থেকেই বিস্ফোরণ ঘটেছে।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, মার্কিন সেনাবাহিনী মনে করছে, বৈরুতে যে ধরনের বিস্ফোরণ ঘটেছে, তা হামলার ঘটনা। মার্কিন সেনা কর্মকর্তারাও মনে করছেন, বৈরুতে হামলার ঘটনা ঘটেছে। গতকাল মঙ্গলবার হোয়াইট হাউসে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে সেনা কর্মকর্তাদের উদ্ধৃত করে ট্রাম্প বলেছেন, সেখানে কোনো ধরনের বোমা বিস্ফোরণ হয়েছে।

তিনি আরো বলেছেন, যে ধরনের বিস্ফোরণ ঘটেছে, তাতে বোমা বিস্ফোরণই মনে হচ্ছে। আমাদের কয়েকজন বিশিষ্ট সেনা কর্মকর্তার সঙ্গে কথা বলেছি। তারা বুঝতে পেরেছে সেখানে কী ঘটেছে। এটা কোনো ধরনের উৎপাদন সংক্রান্ত দুর্ঘটনা নয়।

যদিও এ ব্যাপারে হোয়াইট হাউসের জাতীয় নিরাপত্তা পরিষদ কোনো মন্তব্য করেনি। তবে লেবাননের রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থার খবরে বলা হয়েছে, বন্দরে একটি আতশবাজির গুদামে বিস্ফোরণ থেকে ঘটনার সূত্রপাত হয়ে থাকতে পারে। আর দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জানিয়েছেন, প্রাথমিকভাবে মনে করা হচ্ছে সংরক্ষণ করে রাখা দাহ্য পদার্থের কারণে অগ্নিসংযোগ ঘটেছে, সেখান থেকেই এই বিস্ফোরণ হতে পারে।

সূত্র : ডেইলি মেইল

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা