kalerkantho

শুক্রবার । ১০ আশ্বিন ১৪২৭ । ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০। ৭ সফর ১৪৪২

গ্রিন টপ- এর দখল ছাড়তে নারাজ চীন, ফলাফল ছাড়াই শেষ বৈঠক

অনলাইন ডেস্ক   

৪ আগস্ট, ২০২০ ১৭:৪২ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



গ্রিন টপ- এর দখল ছাড়তে নারাজ চীন, ফলাফল ছাড়াই শেষ বৈঠক

লাদাখের গালওয়ান উপত্যকায় রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের পর থেকে ভারত-চীন উত্তেজনা চলছে। দুই দেশের সেনাবাহিনীর মধ্যে কম্যান্ডার স্তরের পঞ্চম দফার বৈঠকেও কাটল না জট৷ প্যাংগং লেকের কাছে 'গ্রিন টপ' নামে একটি পাহাড় চূড়া থেকে সেনা সরাতে এখনো রাজি হয়নি চীন৷ কৌশলগত ভাবে ওই জায়গাটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ কারণ সেখান থেকে  প্যাংগং লেক সংলগ্ন এলাকায় ভারতীয় সেনাবাহিনীর প্রায় সমস্ত গতিবিধির উপরেই নজর রাখতে পারছে চীনা লাল ফৌজ৷ আর সেই কারণেই ওই এলাকাটির দখলদারি ছাড়তে নারাজ তারা৷

সোমবারই চীনের দিকে মলডোতে ভারত এবং চীনা সেনাবাহিনীর মধ্যে কমান্ডার স্তরে পঞ্চম দফার বৈঠক শেষ হয়েছে৷ কিন্তু বৈঠকে উপস্থিত চীনা প্রতিনিধিরা গ্রিন টপ থেকে বাহিনী সরানো নিয়ে প্রতিশ্রুতি দিতে রাজি হয়নি৷

ভারতের দাবি, প্যাংগং লেকের উত্তর দিকে প্রায় ৫০০০ মিটার উচ্চতায় ঝোপ ঝাড়ে ঘেরা একটি পাহাড় চূড়ো দখল করে রেখেছে চীনা বাহিনী৷ পূর্ব লাদাখে এখনো যেকটি জায়গার দখলদারি নিয়ে চীন এবং ভারতীয় সেনার মধ্যে মতবিরোধ রয়েছে, তার মধ্যে অন্যতম এই গ্রিন টপ৷

নয়াদিল্লির আশা, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এবং জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত দোভালের মাধ্যমে কূটনৈতিক আলোচনায় গ্রিন টপ, গোগরার কাছে ১৭এ প্যাট্রলিং পয়েন্ট, ডেসপ্যাং-এর কাছে ১৩ নম্বর প্যাট্রলিং পয়েন্ট নিয়ে জটিলতা কাটতে পারে৷

চীন মুখে শান্তি ফেরানোর কথা বললেও এপ্রিল মাসে দখল করা জায়গাগুলো থেকে বাহিনীকে পিছিয়ে নেওয়ার বিষয় তারা কতটা আন্তরিক, তা নিয়ে সন্দিহান নয়াদিল্লি৷ ভারত সরকারের এক শীর্ষ কর্মকর্তা বলেন, 'চীন এখনো দখলদারি চালিয়ে যাওয়ায় হয়তো আলোচনার প্রক্রিয়া ভেস্তে যায়নি৷ কিন্তু তাদের এই মনোভাব নিঃসন্দেহে আস্থা অর্জনের পথে বাধা হয়ে দাঁড়াচ্ছে৷'

গ্রিন টপ থেকে সহজেই প্যাংগং লেকের কাছে ধন সিং পোস্টের উপরে নজরদারি চালাতে পারছে চীনা সেনা৷ সেখান থেকেই প্যাংগং লেকের আশেপাশে মোতায়েন বাহিনীর জন্য ভারতীয় সেনার লজিস্টিক এরিয়া রয়েছে৷ ফলে গ্রিন টপ দখল করে রাখলে ভারতীয় সেনার গতিবিধির উপরে নজরদারি চালানো সহজ হবে৷

বৈঠকে চীনের সেনা কর্মকর্তারা যুক্তি দেন, ভারত ওই অঞ্চলে পরিকাঠামো এবং যোগাযোগ ব্যবস্থা তৈরি করে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখার স্থিতাবস্থা ভঙ্গ করেছে৷ তাই তাদের গ্রিন টপ দখল করে রাখাও যুক্তিযুক্ত৷ যদিও চীনের এই যুক্তি মানতে নারাজ ভারত৷ নয়াদিল্লির দাবি, পরিকাঠামো উন্নয়নে যে কাজই করা হচ্ছে, তা নিজেদের ভূখণ্ডেই করছে ভারত৷

সূত্র : নিউজ ১৮।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা