kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১৬ আশ্বিন ১৪২৭ । ১ অক্টোবর ২০২০। ১৩ সফর ১৪৪২

১০০০ ডলারে এশীয় কিশোরী চেয়ে বিজ্ঞাপন অস্ট্রেলীয় যুবকের, অতঃপর...

অনলাইন ডেস্ক   

৩ আগস্ট, ২০২০ ১২:৩১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



১০০০ ডলারে এশীয় কিশোরী চেয়ে বিজ্ঞাপন অস্ট্রেলীয় যুবকের, অতঃপর...

তিনি হতাশাগ্রস্ত। তিনি যৌনতা নিয়ে বেশ কল্পনাপ্রবণ। এক হাজার ডলারের প্রস্তাব দিয়ে মনের মতো কিশোরী খুঁজতে চেয়েছিলেন। আর সেই পথে এগোতে গিয়ে ধরা খেলেন পুলিশের হাতে। 

অস্ট্রেলিয়ার দক্ষিণ-পশ্চিম সিডনির এক শহরতলী ক্যাবরামাতা। সেখানে ৩৩ বছর বয়সী জেমি ম্যাকেইয়ের বাস। এশিয়ান মেয়েদের সাথে সেক্স করার খুব শখ তার। এ উদ্দেশ্য নিয়ে গত বছরের জুনে একটি সেবাভিত্তিকক ওয়েবসাইট লোকান্তো-তে বিজ্ঞাপনও দিয়েছিলেন। সেই বিজ্ঞাপনে বলা হয়েছিল, কোনো এশিয়ান কিশোরীর সাথে সেক্স করতে চাই। বিনিময়ে এক হাজার ডলার দেবো। তার সেই বিজ্ঞাপন স্ট্রাইক ফোর্স ট্রাওলার এর গোয়েন্দাদের নজরে পড়ে। 

মাঠে নামে পুলিশ। এক পুলিশ সদস্য ১৪ বছর বয়সী থাই মেয়ে সেজে যোগাযোগ করেন জেমির সাথে। স্কাইপে-তে তার সাথে যৌনতাপূর্ণ কথাবার্তাও চালাচালি হয়। সেই আলাপচারিতায় যৌনতা সংক্রান্ত কুরুচিপূর্ণ কথাবার্তা বলেন জেমি। 

গত জুনেই গ্রেপ্তার হন তিনি। এ নিয়ে একটি প্রতিবেদন করে ডেইলি টেলিগ্রাফ। প্রতিবেদনে বলা হয়, পুলিশের কাছে জেমি বলেছিলেন, ওই কামপূর্ণ বার্তাগুলো আসলে তিনি মেয়েটিকে ভয় পাইয়ে দেয়ার জন্যই পাঠিয়েছিলেন। 

পরে ক্যাম্পবেলটাউন ডিস্ট্রিক্ট আদালতে বিচারক রিচার্ড ওয়েনস্টেইনকে জেমি জানান, বার্তাগুলো পাঠানোর সময় তিনি ছিলেন একাকী এবং বিষণ্ন। মূলত নিউ জিল্যান্ডের মানুষ তিনি। জানান, তিনি তার কিশোর বয়সের যৌন-ইতিহাসকে পুনরুজ্জীবিত করতে চেয়েছিলেন। 

অভিযোগ গঠন হয়ে জেমির বিরুদ্ধে। একটা সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে ১৬ বছরের কম বয়সী মেয়েকে খুঁজে বের করা প্রচেষ্টা এবং হার্ড ড্রাইভে শিশু পর্ন রাখার অভিযোগ আনা হয়েছে। তাকে দুই বছর তিন মাসের জেল দেয়া হয়। তিনি ২০ সেপ্টেম্বর জেল থেকে মুক্তি পাবেন, তবে এক বছর নজরদারিতে থাকতে হবে। 

সূত্র: ডেইলি মেইল 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা