kalerkantho

সোমবার  । ১৯ শ্রাবণ ১৪২৭। ৩ আগস্ট  ২০২০। ১২ জিলহজ ১৪৪১

মধ্যপ্রদেশে জমির ফসল নষ্ট করল পুলিশ, চাষি পরিবারকে মারধর! (ভিডিও)

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৬ জুলাই, ২০২০ ১২:১১ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



মধ্যপ্রদেশে জমির ফসল নষ্ট করল পুলিশ, চাষি পরিবারকে মারধর! (ভিডিও)

ভারতের মধ্যপ্রদেশের কেন্ট থানা অঞ্চলের জগতপুর চকের গুনা এলাকা। রাজকুমার ও তার স্ত্রী সাবিত্রী বাই এবং ছোটো ছেলে-মেয়ে নিয়ে অভাবের সংসার। স্থানীয় এক নেতা গাব্বু পারদির থেকে কিছু জমি তারা চাষের জন্য নিয়েছিলেন। জমিতে ফসল ফলানোর জন্য ২ লাখ টাকা ঋণও নিতে হয়েছিল। হিসেব ছিল জমির ফসল একবার উঠে গেলে সেই ফসল বেচে লোনের টাকা শোধ করে বাকি টাকা দিয়ে সারা বছর সংসার চালানোর। এই পর্যন্ত মোটামুটি ঠিকঠাকই চলছিল। কিন্তু সবকিছুই উল্টে গেল মঙ্গলবার।

মধ্যপ্রদেশের শিবরাজ সিং এর বিজেপি সরকারের 'আচ্ছে দিনের (ভালো দিনের)' পুলিশ মঙ্গলবার দুপুর আড়াইটার দিকে আগাম কোনো সতর্কতা না দিয়েই চড়াও হয় চাষি পরিবারের ওপর। মেশিন দিয়ে ক্ষেতের সমস্ত ফসল নষ্ট করতে শুরু করে। এমন অভিযোগই উঠেছে। পুলিশের দাবি, যেহেতু ওটা সরকারি জমি তাই চাষ করা যাবে না। এই দৃশ্য দেখে রাজকুমার ও তার স্ত্রী সাবিত্রী বাই পুলিশদের পা ধরে কাকুতি-মিনতি করতে থাকেন। কিন্তু পুলিশের চোখে রাজকুমার জাতিতে দলিত, ওদের ভাষাতে ‘নিচু জাত’ এর লোক। কাজেই তাদের অনুরোধ শোনার প্রশ্নই ওঠে না। তাদের বেদম প্রহার চলতে থাকে। মাথার ওপর ২ লাখ টাকার ঋণ, বাড়িতে ছোটো ছোটো ছেলে মেয়ে, এদিকে চোখের সামনে সমস্ত ফসল নিমেষের মধ্যে নষ্ট করে দিচ্ছে পুলিশ।

এই দৃশ্য আর সহ্য করতে পারেননি তারা। রাজকুমার ও তার স্ত্রী সাবিত্রী দু'জনেই ফসলের কীটনাশক খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত রাজকুমারের অবস্থা একটু ভালো হলেও ওনার স্ত্রী সাবিত্রী বাই মৃত্যুর সাথে লড়ছেন। প্রশাসন থেকে ঘটনার কোনো প্রতিক্রিয়া মেলেনি।

মধ্যপ্রদেশের গুনার এই ঘটনার ভিডিয়ও ছড়িয়ে পড়েছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। পুলিশের নির্মমতা নিয়ে সমালোচনা শুরু হয়েছে। 

মধ্যপ্রদেশের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী কমলনাথ প্রশ্ন তুলেছেন, মধ্যপ্রদেশে মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজের সরকারের আমলে কি 'জঙ্গলরাজ' চলছে! পুলিশ কীভাবে প্রকাশ্যে এমনভাবে কারও ওপর অত্যাচার করতে পারে! সেই নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন অনেকে। ভিডিওতে স্পষ্ট দেখা যাচ্ছে, একদল পুলিশকর্মী দলিত চাষি ও তার স্ত্রীকে নির্মমভাবে লাথি, ঘুসি, লাঠির আঘাত করে যাচ্ছে। চাষি ও তার স্ত্রী মাটিতে লুটিয়ে পড়ছেন। এমনকী তাদের ছোট ছেলেমেয়েদেরকেও রেহাই দেয়নি পুলিশ। মা-বাবাকে বাঁচাতে তারা এগিয়ে এলে তাদেরকেও নির্মমভাবে মেরেছে পুলিশ। 

মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহান গুনার এসপি ও কালেক্টরকে বরখাস্ত করেছেন। ঘটনার তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন তিনি। যদিও পুলিশের পক্ষ চাষি ও তার স্ত্রীকে মারার ঘটনা সম্পূর্ণ অস্বীকার করা হয়েছে। 

সূত্র: জি নিউজ 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা