kalerkantho

সোমবার  । ১৯ শ্রাবণ ১৪২৭। ৩ আগস্ট  ২০২০। ১২ জিলহজ ১৪৪১

ভারতীয় ভূখণ্ডে ভারতের প্রধানমন্ত্রীর সফর, তবুও বেইজিংয়ের তোপ!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৩ জুলাই, ২০২০ ১৭:৫৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ভারতীয় ভূখণ্ডে ভারতের প্রধানমন্ত্রীর সফর, তবুও বেইজিংয়ের তোপ!

চীনের সঙ্গে উত্তেজনার মধ্যেই হঠাৎ লাদাখ সফরে গেলেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। সেখানে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখায় অবস্থিত ভারতীয় বাহিনীর সীমান্ত চৌকি পরিদর্শন করেছেন। মোদির এই আচমকা সফর অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে করছেন প্রতিরক্ষা বিশেজ্ঞরা।

নরেন্দ্র মোদির হঠাৎ লাদাখ সফর নিয়ে মুখ খুলেছে চীনও। সরাসরি মোদির নাম না নিয়ে বেইজিং বলেছে, 'এই মুহূর্তে কোনো পক্ষেরই উচিত নয় উস্কানিমূলক পদক্ষেপ নেওয়া। তবে, ভারতীয় ভূখণ্ডে ভারতের প্রধানমন্ত্রীর সফর কোন যুক্তিতে উসকানিমূলক, তা অবশ্য খোলাসা করেনি চীন।

চীনা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র ঝাও লিজিয়ান শুক্রবার বলেন, 'ভারত ও চীনের মধ্যে যোগাযোগ রয়েছে। উত্তেজনা কমানোর উদ্দেশ্যে সামরিক ও কূটনৈতিক স্তরে আলোচনা চলছে। পরিস্থিতি ফের নতুন গতি পেতে পারে এমন কোনো অ্যাকশন থেকে উভয়পক্ষেরই বিরত থাকা উচিত।'

চীনা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র বেইজিংয়ের ইঙ্গিত খোলাসা না করলেও কূটনৈতিক মহলের একাংশের মতে, ১৫ জুন গালওয়ানে দু'পক্ষের সেনাদের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আবহে যে উত্তেজনা তৈরি হয়েছে মোদির লাদাখ সফরে তা নতুন মাত্রা পেতে পারে সেদিকেই ইঙ্গিত দিতে চেয়েছেন তিনি।

এরআগে, মঙ্গলবার ঝাও ৫৯টি চীনা অ্যাপে মোদি সরকারের নিষেধাজ্ঞার সমালোচনা করেছিলেন। পাশাপাশি, দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্যিক ও আর্থিক সহযোগিতা বৃদ্ধির কথাও বলেছিলেন তিনি। কিন্তু এলএসি’তে মোতায়েন ভারতীয় সেনাদের মনোবল বৃদ্ধির উদ্দেশ্যে সেনাপ্রধান জেনারেল মনোজ মুকুন্দ নভরনে এবং চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফ (সিডিএস) বিপিন রাওয়াতকে সঙ্গী করে প্রধানমন্ত্রীর লাদাখ সফরের দিনেই তার এই মন্তব্য ইঙ্গিতবাহী বলেই মনে করা হচ্ছে।

সূত্র- আনন্দবাজার।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা