kalerkantho

শনিবার । ২৭ আষাঢ় ১৪২৭। ১১ জুলাই ২০২০। ১৯ জিলকদ ১৪৪১

বিক্ষোভের কারণে ওয়াশিংটনে ১৬০০ সেনা সদস্য পাঠিয়েছে পেন্টাগন

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৩ জুন, ২০২০ ১৮:২৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বিক্ষোভের কারণে ওয়াশিংটনে ১৬০০ সেনা সদস্য পাঠিয়েছে পেন্টাগন

কৃষ্ণাঙ্গ হত্যায় উত্তাল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। মিনিয়াপোলিশে জর্জ ফ্লোয়েড নামে এক কৃষ্ণাঙ্গ হত্যার অভিযোগ ঘিরে ঘটনার সূত্রপাত। এই ঘটনায় ওয়াশিংটন ডিসিতেও ছড়িয়ে পড়ে বিক্ষোভ। সেই বিক্ষোভ সামাল দিতে ওয়াশিংটন ডিসি অঞ্চলে প্রায় এক হাজার ছয়শ সেনা স্থানান্তর করেছে পেন্টাগন। মঙ্গলবার মার্কিন প্রতিরক্ষা বিভাগের সদরদপ্তর পেন্টাগন এই তথ্য জানিয়েছে।

পেন্টাগনের মুখপাত্র জোনাথন রথ হফম্যান এক বিবৃতিতে বলেছেন, বর্তমান পরিস্থিতিতে বেসামরিক কর্তৃপক্ষের ক্রিয়াকলাপ অব্যাহত রাখতে সহায়তা করার জন্য প্রতিরক্ষা বিভাগ একাধিক সক্রিয় দায়িত্বপ্রাপ্ত সেনা ইউনিটকে রাজধানী অঞ্চলে স্থানান্তরিত করেছে। তবে এই অঞ্চলে সক্রিয় দায়িত্বশীলরা উচ্চতর সতর্ক অবস্থায় রয়েছে। প্রতিরক্ষাবিষয়ক সহায়তায় অংশ নিচ্ছে না সেনা সদস্যরা।

এর আগে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বলেছিলেন, তিনি বিক্ষোভ থামাতে মার্কিন সেনা মাঠে নামাবেন। তখন ডেমোক্র্যাটস এবং প্রাক্তন সামরিক নেতারা বিষয়টি নিয়ে হতাশা প্রকাশ করেছিলেন। ডেমোক্র্যাটিক সিনেটর টমি ডাকওয়ার্থ সেনা মোতায়েন নিয়ে প্রতিবাদও করেছেন। তিনি স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন সেনা মোতায়েন চান না তিনি। 

গত সপ্তাহ থেকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে আন্দোলন চলছে। মিনিয়াপোলিশে জর্জ ফ্লোয়েড হত্যার একটি ভিডিও ভাইরাল হতেই দেশটিতে বিক্ষোভ ব্যাপক মাত্রায় ছড়িয়ে পড়ে।

শ্বেতাঙ্গ এক পুলিশকর্মী পিষে মেরেছেন জর্জকে। এই নৃশংসতা ও বর্ণবৈষম্যের প্রতিবাদে বিক্ষোভ শুরু হয় মিনিয়াপোলিশে। ক্রমে তা ছড়িয়ে পড়ে গোটা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে। ‘উই কান্ট ব্রিথ’ ব্যানারে আয়োজন করা হয়েছে এই বিক্ষোভের।

সূত্র: এএ।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা