kalerkantho

শুক্রবার । ১৯ আষাঢ় ১৪২৭। ৩ জুলাই ২০২০। ১১ জিলকদ  ১৪৪১

প্রেমের প্রস্তাবে 'না', তরুণীর গলায় ধারালো অস্ত্রের কোপ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৭ মে, ২০২০ ২২:২১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



প্রেমের প্রস্তাবে 'না', তরুণীর গলায় ধারালো অস্ত্রের কোপ

ভারতের উদয়নারায়ণপুরের গড়ভবানীপুর সোনাতলা নামক এলাকায় প্রেমে প্রত্যাখ্যাত হয়ে তরুণীকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে খুন করার অভিযোগ ওঠল এক যুবকের বিরুদ্ধে। বুধবার সকালে ঘটনাটি ঘটে। মৃতের নাম তৃষা বাগ। তার বড়ি দেশটির গড়ভবানীপুরের পানিয়াগড়ি এলাকায়। তৃষা গড়ভবানীপুর রামপ্রসন্ন বিদ্যা নিকেতনের একাদশ শ্রেণির ছাত্রী। অভিযুক্ত যুবক অজিত বাগ পলাতক। তার খোঁজে তল্লাশি করছে উদয়নারায়ণপুর থানার পুলিশ।

ভারতের স্থানীয় সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা যায়, বুধবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে তৃষা প্রাইভেট টিউশন পড়ে সাইকেলে চেপে বাড়ি ফিরছিল। সেই সময় বাঁশতলার কাছে অজিত আচমকা তৃষার ওপর ঝাঁপিয়ে পড়ে। কিছু বুঝে ওঠার আগেই অজিত তৃষার গলায় কাটারি দিয়ে কোপ মারে। রক্তাক্ত হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে তৃষা। স্থানীয়রা ঘটনাটি দেখে ছুটে আসে। তাদের আসতে দেখে পালিয়ে দেয় অজিত। স্থানীয়রা তৃষাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়। তবে চিকিত্‍সকরা তাকে মৃত বলে জানান। পুলিশ অজিতের মোবাইল ফোনটি উদ্ধার করেছে। তাকে ধরার চেষ্টা করছে।

পরিবারের অভিযোগ, অজিত তাকে প্রায়ই প্রেম নিবেদন করে উত্যক্ত করত। এ নিয়ে তৃষার পরিবারের লোকেরা অজিতকে বহুবার নিষেধ করেছে। বেশ কয়েকদিন আগে একবার সালিশও হয়। অজিতকে প্রেম নিবেদন না করার কথাও বলা হয়। তারপর কয়েকদিন অজিত আর তৃষাকে প্রেম প্রস্তাব দেয়নি। তারপর বুধবার আচমকা ওই স্কুলছাত্রীর ওপর হামলা চালায়।

তৃষার মা প্রভাতী বাগ বলেন, ‘অজিত মেয়েকে বিরক্ত করত। আমরা প্রতিবাদও করেছি। কিন্তু ও যে মেয়েকে খুন করে দেবে তা ভাবতে পারছি না। আমরা ওর চরম শাস্তি চাই।’ অজিতের পরিবারেরও দাবি, দোষ করলে আইন তাকে শাস্তি দিক।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা