kalerkantho

বুধবার । ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ । ২৭  মে ২০২০। ৩ শাওয়াল ১৪৪১

করোনায় কারামুক্তি, বেরিয়েই পুলিশের স্ত্রীকে গলা কেটে হত্যা!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৪ এপ্রিল, ২০২০ ২১:০৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



করোনায় কারামুক্তি, বেরিয়েই পুলিশের স্ত্রীকে গলা কেটে হত্যা!

কারাগারে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়লে ভয়াবহ বিপর্যয় তৈরি হবে এমন আশঙ্কায় বিশ্বের অনেক দেশই কারাবন্দিদের মুক্তি কিংবা সাময়িক মুক্তি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ভারতের মহারাষ্ট্র রাজ্য সরকারও এমনি সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তবে করোনার সুযোগে মুক্তি পেয়েই পুলিশ সদস্যের স্ত্রীকে গলা কেটে হত্যা করেছে এক খুনি।

মহারাষ্ট্রের নাগপুরে শনিবার এই ঘটনা ঘটেছে। সকাল দশটার দিকে নগরীর নন্দনভান এলাকায় ক্রাইম ব্রাঞ্চের প্রধান কনস্টেবল অশোক মুলের স্ত্রী সুশীলার গলা কেটে হত্যা করেছেন নবীন গোটাফোদে নামের ওই খুনি। করোনার প্রাদুর্ভাবে কারাগারে ভিড় কমাতে সম্প্রতি তাকে মুক্তি দেওয়া হয়েছিল।

মুক্তি পাওয়ার পর গোটাফোদে সুশীলার ছেলের সঙ্গে দেখা করতে চেয়েছিলেন। স্কুল জীবন থেকে তারা দু'জন বন্ধু ছিল। সুশীলা এই বন্ধুত্বের বিষয়ে আপত্তি জানানোয় রেগে যায় গোটাফোদ। শুক্রবার রাতে তিনি সুশীলার ছেলের সাথে দেখা করতে এসেছিলেন কিন্তু পারেননি।

তাই শনিবার তিনি আবার তাদের বাড়িতে ফিরে আসেন এবং সুশীলাকে গলা কেটে হত্যা করেন। তাকে থামানোর চেষ্টা করলে গোটাফোদ তার বন্ধুর ওপরও হামলা চালায়। পরে সেখান থেকে পালিয়ে যায়।

পুলিশ কমিশনার নির্মলা দেবী জানান, গোটাফোদকে গ্রেপ্তারের জন্য খোঁজ চরছে। তার বিরুদ্ধে একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে।

সূত্র-আউটলুক ইন্ডিয়া।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা