kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ । ২ জুন ২০২০। ৯ শাওয়াল ১৪৪১

অন্ধকার মৃত্যুপুরীতে একাকী পোপ!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৯ মার্চ, ২০২০ ১৯:৪৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



অন্ধকার মৃত্যুপুরীতে একাকী পোপ!

করোনা-আক্রান্ত দেশগুলির মধ্যে ইতালিতেই প্রথম মৃতের সংখ্যা ১০ হাজার ছাড়িয়ে গিয়েছে। স্থাপত্য, রোমান্টিসিজমের দেশ এখন যেন মৃত্যু উপত্যকা। প্রতিদিন শয়ে-শয়ে লাশ নিয়ে যাওয়া হচ্ছে কফিনবন্দি করে। প্রাণঘাতী করোনায় অন্ধকার নেমে এসেছে ইতালিতে। গতকাল ২৪ ঘণ্টায় ইতালিতে মারা গিয়েছেন ৮৮৯ জন। জনশূন্য ভ্যাটিকান স্বয়ং পোপও ভীত, সন্তস্ত্র। বলেছেন, 'এমন অবস্থা থেকে ইতালি কবে যে বেরিয়ে আসতে পারবে তার কোনও ঠিক নেই'।

শুধু তাই নয়, ভ্যাটিকানে যখন এই সময় বহু মানুষের সমাগম থাকে, সেখানে এবার পুরো খাঁ-খাঁ করছে চারপাশ। যেন কোনও মৃত্যুপুরী হয়ে রয়েছে গোটা দেশ। হতাশার সঙ্গে পোপ বলেছেন, 'চারদিকে শুধুই অন্ধকার। কোথাও আলো নেই। সব শূন্য। এত মানুষ মারা গিয়েছেন! চারিদিকে শুধু হতাশা। সবাই প্রচণ্ড ভয়ে আছি। কোথাও যেন হারিয়ে যাচ্ছি আমরা।'

তবে, মানুষের এই দুঃসময়ে যাঁরা দিবারাত্রি কাজ করে চলেছেন, সেই চিকিৎসক-স্বাস্থ্যকর্মী, নার্সদের প্রতি অকুণ্ঠ কৃতজ্ঞতাও ধরা পড়েছে পোপের গলায়। তিনি বলেন, 'সকলের এখন ওই মানুষগুলোর সাহস জোগানো উচিত, যাঁরা আমাদের সুস্থতার জন্য প্রতি মুহূর্তে কাজ করে চলেছেন।'

এই দুঃসময়ে সকলকে সকলের জন্য থাকতে হবে বলেও মত দিয়েছেন তিনি। তাঁর কথায়, 'করোনাভাইরাস যদি ঝড় হয়, তা হলে এই ঝড়ের বিরুদ্ধে লড়াই করার জন্য আমরা সবাই একসঙ্গে রয়েছি। একসঙ্গে লড়তে হবে সকলকে। ঈশ্বর আমাদের ঠিক আলো ঝলঝলে এক দিনে পৌঁছে দেবেন।'

এখনও পর্যন্ত গড়ে তোলা যাবতীয় প্রতিরোধ ছারখার করে, ইতালিকে একাই মৃত্যুপরীতে পরিণত করছে ঘাতক করোনাভাইরাস। গত শুক্রবারই ৯১৯ জন করোনা আক্রান্তের মৃত্যু হয়েছে। ইতালিতে নোভেল করোনা কামড় বসানোর পর থেকে এ পর্যন্ত এটাই একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যু। শুক্রবারই ইউরোপের এই দেশটিতে মোট মৃতের সংখ্যা ৯ হাজার ছাড়িয়ে গিয়েছিল। রবিবার তা ১০ হাজার ছাড়িয়েছে।

সুত্র: এই সময়

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা