kalerkantho

শনিবার । ২৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ । ৬ জুন ২০২০। ১৩ শাওয়াল ১৪৪১

ভারতে লকডাউন

করোনায় ইতিহাস, ২০০ বছর পর প্রথমবার মসজিদে হলো না জুমার নামাজ!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৮ মার্চ, ২০২০ ১৮:২৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



করোনায় ইতিহাস, ২০০ বছর পর প্রথমবার মসজিদে হলো না জুমার নামাজ!

বিশ্বের অন্তত একশ ৯৯টি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস। বিশ্বজুড়ে এ পর্যন্ত অন্তত ছয় লাখ ১৪ হাজার দু’শ ৩১ মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। আর মারা গেছেন ২৮ হাজার দু’শ ৪০ জন। আর সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন এক লাখ ৩৭ হাজার তিনশ ২৮ জন মানুষ। 

করোনা আতঙ্ক ছড়িয়েছে সারা বিশ্বে। মারণ রোগ করোনাভাইরাসের আগমনের কারণে আজ সেই সকল ধর্মস্থানে পড়েছে তালা। মন্দিরে নেই পূজা, চার্চে নেই প্রার্থনা, আর মসজিদে নেই নামাজ পড়া। ভারতে আজ যখন মহামারির আকার ধারণ করেছে করোনাভাইরাস, তখন মুসলমান ধর্মের ইতিহাসে পড়ল একটি বড় ধাক্কা। ভারতের বড় বড় মসজিদে পড়া হল না জুমার নামাজ।

শুক্রবারকে আরবি ভাষায় জুমারবার বলা হয়ে থাকে। আর সেই শুক্রবারের নামাজ পড়াটাকেই বলা হয় জুমার নামাজ। সপ্তাহের এই নামাজটাই অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ মুসলিমদের জন্য। কিন্তু করোনাভাইরাসের জেরে ভারতের প্রায় সমস্ত মসজিদে নমাজ পড়া বন্ধ হয়ে গেছে।

মসজিদের ইমামরা আহ্বান জানিয়েছেন যাতে ভিড় না বাড়িয়ে বাড়িতে বসেই সকল ধর্মীয় কাজ ও নামাজ পড়া হয়। আর তার জেরে দেশের বড় বড় মসজিদ, যেমন জামা মসজিদ, নাখোদা মসজিদ, কিংবা কলকাতার টিপু সুলতান মসজিদ; কোথাও পড়া হয়নি জুমার নামাজ। বিশেষজ্ঞদের মতে, প্রায় ২০০ বছরে এই প্রথমবার মসজিদে জুমার নামাজ পড়া হয়নি।

ভারতজুড়ে বিভিন্ন মসজিদের সামনে বিশাল সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে, যাতে অত্যধিক ভিড় না জমে। এদিকে আবার ইমামরা আহ্বান জানিয়েছেন সকল মানুষ যাতে ভিড় না বাড়িয়ে বাড়িতে থাকে। ইমামদের অনুরোধ শুনে মানুষ আসেননি, বাড়ি থেকেই সেরেছেন নামাজ।

মূত্র: কলকাতা টাইমস।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা