kalerkantho

শনিবার । ২১ চৈত্র ১৪২৬। ৪ এপ্রিল ২০২০। ৯ শাবান ১৪৪১

ভারতে ‘পাকিস্তান জিন্দাবাদ’ স্লোগান, গ্রেপ্তার তরুণী, বাড়িতে হামলা

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২১ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ১৯:১২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ভারতে ‘পাকিস্তান জিন্দাবাদ’ স্লোগান, গ্রেপ্তার তরুণী, বাড়িতে হামলা

ভারতের বেঙ্গালুরুতে ছিল সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ। সেই প্রতিবাদ মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন অল ইন্ডিয়া মজলিস-ই-ইত্তেহাদুল মুসলিমিন (এআইএমআইএম) নেতা আসাউদ্দিন ওয়াইসি। সেখানেই এক তরুণী মাইক নিয়ে ‘পাকিস্তান জিন্দাবাদ’ স্লোগান দিতে শুরু করেন। তা শুনেই মঞ্চে উপস্থিত আসাদউদ্দিনসহ অন্যরা তাকে বাধা দেন।

ভারতের স্থানীয় সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা গেছে, ওই তরুণীর নাম অমূল্য। তাকে গ্রেপ্তার করেছে স্থানীয় পুলিশ। তার বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ১২৪-এ (রাষ্ট্রদ্রোহিতা), ১৫৩-এ এবং বি ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। পরে তার জামিনের বিরোধিতা করে ১৪ দিনের বিচারবিভাগীয় হেফাজতের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। স্থানীয় আদালত আগামী সোমবার ফের তার জামিনের আবেদন শুনবে।

জানা যায়, ‘সেভ কনস্টিটিউশন’ ব্যানারের নিচে আয়োজন করা হয়েছিল সিএএ বিরোধী প্রতিবাদ মঞ্চের। সেখানেই বক্তৃতা করতে গিয়ে ওই তরুণী বলে ওঠেন ‘পাকিস্তান জিন্দাবাদ’। এই ঘটনার পর দুর্বৃত্তরা বাড়ি ভাংচুর করেছে। তার বাড়িতে পাথর নিক্ষেপ করেছে। এরপর ওই বাড়ির আশেপাশে কয়েকজন পুলিশ কর্মীকে মোতায়েন করা হয়। পুলিশ জানিয়েছে, এ ঘটনায় তার বাড়ির জানালা ভেঙে গেছে।

ভাইরাল হওয়া একটি ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, মাইক কেড়ে নেওয়ার চেষ্টা হলেও ওই তরুণী কিছুতেই তা ছাড়তে চাইছেন না। সেই সময় অমূল্যকে একবার ‘হিন্দুস্তান জিন্দাবাদ’ বলতেও শোনা যায়। এরপরই তার হাত থেকে মাইক্রোফোন কেড়ে নেওয়া হয়। তাকে পেছনে নিয়ে যায় পুলিশ। সেখান থেকে নিজেকে ছাড়িয়ে ফের মঞ্চের সামনে এসে আরো কিছু বলার চেষ্টা করছিলেন ওই তরুণী। কিন্তু তখন তার হাতে ছিল না মাইক্রোফোন।

এরপর মঞ্চে পুলিশ উঠে তাকে আটক করে মঞ্চ থেকে নামিয়ে নিয়ে চলে যায়। বেঙ্গালুরুর সিনিয়র পুলিশ অফিসার বি রমেশ বলেছেন, তার বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ১২৪-এ (রাষ্ট্রদ্রোহিতা), ১৫৩-এ এবং বি ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। 

ওই তরুণীর বক্তব্যের বিরোধিতা করে আসাদউদ্দিন ওয়াইসি বলেন, এই বক্তব্যের তীব্র নিন্দা করছি। ওই নারীর সঙ্গে আমার দলের কোনো যোগাযোগ নেই। আমরা ভারতের পক্ষে এবং কোনোভাবেই আমাদের শত্রু পাকিস্তানকে সমর্থন করি না। আমাদের লড়াই ভারতকে বাঁচানোর।

এই ঘটনা প্রসঙ্গে মুখ খুলেছেন অমূল্যর বাবা। তিনি এক সংবাদ সংস্থাকে জানান, আমার মেয়ে যেটা বলেছে সেটা ভুল। কিছু মুসলিমের সঙ্গে যোগ দিয়েছে অমূল্য। আমার কথা শুনছে না।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা