kalerkantho

সোমবার । ২৩ চৈত্র ১৪২৬। ৬ এপ্রিল ২০২০। ১১ শাবান ১৪৪১

করোনা ইস্যুতে সরকারের সমালোচনা, সমাজকর্মী গ্রেপ্তার

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ১৫:৩১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



করোনা ইস্যুতে সরকারের সমালোচনা, সমাজকর্মী গ্রেপ্তার

চীনের জনপ্রিয় সমাজকর্মী জু ঝিয়ং

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে চীনে মৃতের সংখ্যা বেড়েই চলেছে। পরিস্থিতি মোকাবিলায় হিমশিম খাচ্ছে প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং প্রশাসন। এদিকে,  জিনপিং প্রশাসনের ভূমিকা নিয়ে কঠোর সমালোচনা করায় শাস্তি পেলেন চীনের জনপ্রিয় সমাজকর্মী জু ঝিয়ং। তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।  

এই গ্রেপ্তারের ঘটনায় আন্তর্জাতিক মহলে ব্যাপক সমালোচিত হচ্ছে চীনা প্রশাসন। গুয়াংঝৌ থেকে তাঁকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। যদিও এ বিষয়ে গুয়াংঝো পুলিশ কিছু বলছে না। জু'কে নিয়ে চিন্তিত চীনে কর্মরত অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের সদস্যরা।

কট্টর কমিউনিস্টপন্থী চীনে যেটুকু উদারতা ছিল, শি জিনপিং ক্ষমতায় আসার পর তা খর্ব হয়ে গিয়েছে। বেড়েছে ক্ষমতার আধিপত্য। শি জিনপিংয়ের চীন সম্পর্কে এমনটাই শোনা যায়। তা যে বিশেষ ভুল কিছু নয়, দুর্নীতিবিরোধী সমাজকর্মী জু ঝিয়ংয়ের গ্রেপ্তারিই তার প্রমাণ। 

চীনে নোভেল করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ বেড়ে যাওয়া পর গত ডিসেম্বর থেকে জিনপিং প্রশাসনের সমালোচনা শুরু করেছিলেন জু। রোগ নিয়ে প্রকৃত তথ্য গোপন করছেন জিনপিং। এ কথা জিয়ামেনের প্রকাশ্য সমাবেশে সোচ্চার কণ্ঠে বলতেও দ্বিধাবোধ করেননি। সেদিনের সমাবেশে জু'-এর সঙ্গে সমস্বরে কথা বলায় আটক হয়েছিলেন বেশ কয়েকজন আইনজীবীও।

জানা গেছে, প্রতিবাদ শুধু মৌখিক স্তরেই আটকে রাখেননি জু । নতুন বছরে একটি প্রতিবেদনও প্রকাশ করেছিলেন তিনি, যার মূল বিষয়বস্তু ছিল, জিনপিংয়ের পদত্যাগের দাবি। 

সেখানে তিনি লিখেছিলেন, ডাক্তারির সরঞ্জাম ঠিকমতো পাওয়া যাচ্ছে না। হাসপাতালগুলোতে উপচে পড়ছে রোগীর সংখ্যা, আক্রান্তদের শারীরিক পরীক্ষাও ঠিকমতো হচ্ছে না। সবমিলিয়ে বড়সড় গন্ডগোল বেঁধেছে।

তিনি সে সময় বলেছেন, সমালোচকদের কণ্ঠরোধ করে দেওয়ার মতো প্রাচীন পথেই চলছে চীন।

এরপরই সরকারের রোষানলে পড়েন জু। বিপদ বুঝে তিনি গা ঢাকাও দিয়েছিলেন। কিন্তু শেষরক্ষা হলো না। চীনা লাল ফৌজের হাতে গ্রেপ্তার হতেই হলো। 

এ নিয়ে মানবাধিকার সংগঠন নিয়ে গবেষণারত চীনা নাগরিক ইয়াকিউ ওয়াং বলছেন, করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ তো বাক স্বাধীনতার মতো বেশ কিছু সামাজিক অধিকারও কেড়ে নিয়েছে।

এদিকে, জু'কে কারামুক্ত করতে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংগঠনগুলি তৎপর হয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা