kalerkantho

শনিবার । ২১ চৈত্র ১৪২৬। ৪ এপ্রিল ২০২০। ৯ শাবান ১৪৪১

‘যুক্তরাষ্ট্র, চীন ও রাশিয়া বিশ্বকে বিপজ্জনক করে তুলছে’

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ১৯:৪৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



‘যুক্তরাষ্ট্র, চীন ও রাশিয়া বিশ্বকে বিপজ্জনক করে তুলছে’

যুক্তরাষ্ট্র, চীন ও রাশিয়া পুরো বিশ্বকে বিপজ্জনক করে তুলছে বলে মন্তব্য করে মিউনিখ নিরাপত্তা সম্মেলনের উদ্বোধনী বক্তব্যে জার্মান প্রেসিডেন্ট ফ্রাঙ্ক ওয়াল্টার স্টেইনমেইয়ার বলেছেন, তিন পরাশক্তি বৈশ্বিক ব্যবস্থাকে প্রতিনিয়ত ঝুঁকির মুখে ফেলছে।

 সম্মেলনে অংশ নিয়ে ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জাকারবার্গ বলেন, অনলাইনে ভুয়া তথ্য রোধে কড়াকড়ি আরোপ জরুরি।

মিউনিখ নিরাপত্তা সম্মেলনের প্রতিবাদে শনিবার শহরটির রাস্তায় নামেন কয়েক হাজার মানুষ। বৈশ্বিক শান্তি প্রতিষ্ঠায় বিশ্বনেতাদের দেশে দেশে সামরিক হস্তক্ষেপ বন্ধের দাবি জানান তারা। এসময় মত প্রকাশ ও গণমাধ্যমের স্বাধীনতার দাবি জানান বিক্ষোভকারীরা।

তারা বলেন, এখানে তারা নিরাপত্তা সম্মেলনের নামে অস্ত্রের বাণিজ্য করতে আসেন। প্রতিবছর আমরা তার প্রতিবাদ জানাতে এখানে আসি।

এটাকে কোনোভাবেই শান্তি কিংবা নিরাপত্তার সম্মেলনে বলা যায় না। এই সম্মেলনে নিজেদের সামরিক স্বার্থ নিয়ে আলোচনা করেন বিশ্বনেতরা।

আন্দোলনের মধ্যেই শুক্রবার শুরু হয় মিউনিখ সম্মেলন। এবারের সম্মেলনে করোনাভাইরাস ও মধ্যপ্রাচ্য সঙ্কট মূল আলোচনার বিষয় হলেও বিশ্বনেতাদের বক্তব্যে উঠে আসে নানা সঙ্কটের কথা। উদ্বোধনী বক্তব্যে জার্মানির প্রেসিডেন্ট বলেন, যুক্তরাষ্ট্র, চীন ও রাশিয়ার বেপরোয়া নীতির কারণে হুমকির মুখে পড়ছে পুরো বিশ্ব। এসময় মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের নাম উল্লেখ না করলেও তার বিতর্কিত পদক্ষেপের সমালোচনা করেন তিনি।

জার্মানির প্রেসিডেন্ট ফ্রাঙ্ক ওয়াল্টার স্টেইনমেইয়ার বলেন, যুক্তরাষ্ট্র, রাশিয়া এবং চীনের পরমাণু অস্ত্র প্রতিযোগিতা বৈশ্বিক অস্থিরতার অন্যতম কারণ। একেকজন রাষ্ট্রনায়ক নিজ দেশকে মহান করতে বেপরোয়া পদক্ষেপ নিয়ে চলছেন। আর রাশিয়া ইউরোপীয় সীমান্তে নিরাপত্তা জোরদারের মাধ্যমে পরিস্থিতি উত্তপ্ত করে তুলছে।

একই সম্মেলনে অংশ নিয়ে ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জাকারবার্গ বলেন, অনলাইনে ভুয়া তথ্য প্রতিরোধে পদক্ষেপ নেয়া খুবই জরুরি। কোনো বক্তব্য আইনসম্মত ও বৈধ কিনা সেটি বিচার করা ফেসবুকের মত কোনো প্রতিষ্ঠানের কাজ হতে পারে না বলেও মনে করেন তিনি।

ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা ও সিইও মার্ক জাকারবার্গ বলেন, সমাজে সমতার ভারসাম্য রক্ষার কাজটি গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ার বদলে বেসরকারি প্রতিষ্ঠান নেবে, তা আমরা চাই না। এজন্য রাষ্ট্রগুলোকেই ব্যবস্থা নিতে হবে। ভুয়া তথ্য ঠেকাতে এরইমধ্যে আমরা নানা পদক্ষেপ নিয়েছি। এক্ষেত্রে সম্মিলিত প্রচেষ্টা দরকার।

সম্মেলনে নিরাপত্তা ইস্যুর পাশাপাশি করোনাভাইরাস নিয়ে উদ্বেগ জানান আলোচকরা।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা