kalerkantho

সোমবার। ২৭ জানুয়ারি ২০২০। ১৩ মাঘ ১৪২৬। ৩০ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১     

নিকাহ্‌ হালালের নামে ধর্ষণ করেছে তান্ত্রিক

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৩ ডিসেম্বর, ২০১৯ ১৭:২৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নিকাহ্‌ হালালের নামে ধর্ষণ করেছে তান্ত্রিক

স্বামী তিন তালাক দিয়েছিলেন। আবার সেই স্বামীই তাকে বিয়ে করতে চান। সে জন্য নিকাহ্‌ হালাল প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে যেতে হবে স্ত্রীকে। সেই নিকাহ্‌ হালালের নামে তিন তালাকপ্রাপ্ত  নারীকে ধর্ষণ করেছেন এক তান্ত্রিক। গত বুধবার ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের মধ্যপ্রদেশের ভোপালে। 

ওই নারীর অভিযোগের ভিত্তিতে তার স্বামী ও তান্ত্রিককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। পুলিশকে দেওয়া বয়ান অনুযায়ী, দাম্পত্য কলহের জেরে গত ২৩ নভেম্বর তাকে তিন তালাক দিয়েছিলেন স্বামী। যা এখন ভারতে অবৈধ। কিন্তু কিছুদিন পর নিজের সিদ্ধান্ত বদলে তাকে আবারো বিয়ে করার সিদ্ধান্ত নেন স্বামী। তখন ওই নারীর ‘নিকাহি বাপ’ আনোয়ার বাবা জানান, নারী নিকাহ্‌ হালাল করলে তবেই আবারো বিয়ে করতে পারবেন প্রথম স্বামীকে।

পুলিশ জানিয়েছে, তান্ত্রিক আনোয়ার বাবা ওই নারীকে নিকাহ্‌ হালাল করার জন্য নিয়ে যান আশবাঘ এলাকায়। সেখানে ফ্ল্যাট রয়েছে আনোয়ারের। সেই ফ্ল্যাটেই ওই নারীকে ধর্ষণ করেন ওই তান্ত্রিক। অত্যাচারিত হয়ে ওই নারী বাড়ি ফিরে এলে তাকে ঢুকতে দিতে অস্বীকার করেন তার স্বামী। এর পরই পুলিশে অভিযোগ দায়ের করেন ওই নারী। সেই অভিযোগের ভিত্তিতে অভিযুক্ত তান্ত্রিক ও স্বামীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

এ ব্যাপারে জাহাঙ্গিরাবাদের সিটি সুপারিন্টেন্ডেন্ট অব পুলিশ আব্দুল আলিম খান বলেছেন, ওই নারীর স্বামীকে মুসলিম ওম্যান (প্রোটেকশন অব রাইটস অন ম্যারেজ) অ্যাক্টে ও আনোয়ার বাবাকে ধর্ষণের জন্য গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা