kalerkantho

রবিবার । ১৯ জানুয়ারি ২০২০। ৫ মাঘ ১৪২৬। ২২ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১     

স্কুলের দুই ছাত্রী অন্তঃসত্ত্বা, প্রধান শিক্ষিকার স্বামী গ্রেপ্তার

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৮ ডিসেম্বর, ২০১৯ ২০:২২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



স্কুলের দুই ছাত্রী অন্তঃসত্ত্বা, প্রধান শিক্ষিকার স্বামী গ্রেপ্তার

সপ্তম শ্রেণির এক ছাত্রীকে ধর্ষণের ঘটনায় গর্ভবতী হওয়ার অভিযোগে আগেই গ্রেপ্তার করা হয়েছে স্কুলের প্রধান শিক্ষিকার স্বামীকে। এবার জানা গেল, ওই স্কুলের দশম শ্রেণির এক ছাত্রীও সাত মাসের অন্তঃসত্ত্বা। সেও একই অভিযুক্তের লালসার শিকার।

ভারতের উড়িষ্যার কোরাপুট জেলার একটি আবাসিক স্কুলে ঘটনাটি ঘটেছে। লক্ষ্মীপুরা এলাকার বাসিন্দা দশম শ্রেণির ওই ছাত্রী সাত মাসের অন্তঃসত্ত্বা। পুলিশ বলছে, আগেই জানা গিয়েছিল, সপ্তম শ্রেণির এক ছাত্রী তিন মাসের অন্তঃসত্ত্বা। 

সেই খবর জানাজানি হতেই প্রধান শিক্ষিকার স্বামীর বিরুদ্ধে অভিযোগের কথা প্রকাশ্যে আসে। তাকে গ্রেপ্তার করে আদালতে পাঠানোও হয়েছে। অভিযোগ উঠেছে, মাসের পর মাস সপ্তম শ্রেণির ছাত্রীর ওপর যৌন নির্যাতন চালিয়েছেন ৬০ বছরের অভিযুক্ত। স্কুলেরই স্টাফ কোয়ার্টারে স্ত্রীর সঙ্গে থাকতেন তিনি।

জেপোরের এসডিপিও বরুণ গুন্টুপল্লি জানান, নিজের কোয়ার্টারে নিয়মিত ওই ছাত্রীকে ডেকে পাঠিয়ে অত্যাচার চালাতেন অভিযুক্ত। এমনকি, গরমের ছুটির সময়ও বাবা-মায়ের কাছ থেকে অনুমতি নিয়ে মেয়েটিকে নিজের বাড়িতে নিয়ে এসে তিনি নির্যাতন চালিয়েছেন বলে অভিযোগ রয়েছে। কারো কাছে এ বিষয়ে মুখ খুললে কঠিন ফল ভোগ করতে হবে বলেও হুমকি দিয়েছিলে তিনি। অভিযুক্তের স্ত্রী এ বিষয়ে কিছুই জানতেন না বলে জানিয়েছে পুলিশ।

রাজ্য সরকারের এসসি/এসটি উন্নয়ন দপ্তরের নিয়ন্ত্রণাধীন ওই স্কুল। জেলার শিশু সুরক্ষা কর্মকর্তা রাজশ্রী দাস জানিয়েছেন, সপ্তম শ্রেণির ছাত্রীকে শিশু সুরক্ষা প্রতিষ্ঠানে রাখা হবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা