kalerkantho

রবিবার । ১৯ জানুয়ারি ২০২০। ৫ মাঘ ১৪২৬। ২২ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১     

বেশি দামে কিনে ৫০ টাকা কেজি পেঁয়াজ বেচবে মমতার প্রশাসন

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৮ ডিসেম্বর, ২০১৯ ১৯:৪৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বেশি দামে কিনে ৫০ টাকা কেজি পেঁয়াজ বেচবে মমতার প্রশাসন

পেঁয়াজের লাগামহীন দামের রাশ টানতে রবিবার থেকে সস্তায় পেঁয়াজ বিক্রির কথা জানিয়েছিল পশ্চিমবঙ্গ সরকার। জানানো হয়েছিল, রাজ্যের তিনশ স্বনির্ভর গোষ্ঠীর মাধ্যমে ন্যায্যমূল্যে পেঁয়াজ বিক্রি করা হবে। এবার রেশন দোকান থেকেও প্রায় অর্ধেক দামে পেঁয়াজ বিক্রি করবে রাজ্য সরকার। রবিবার খাদ্যভবনে পেঁয়াজ নিয়ে জরুরি বৈঠকের পর এ কথা জানান রাজ্যের মুখ্য কৃষি উপদেষ্টা প্রদীপ মজুমদার।

জানা গেছে, পাইকারি বাজার থেকে ভর্তুকি দিয়ে পেঁয়াজ কিনে ৯৩৫টি কাউন্টার থেকে বিক্রি করা হবে। কেজি প্রতি দেওয়া হবে ৫০ টাকা ভর্তুকি। প্রতি পরিবারের জন্য এক কেজি করে পেঁয়াজ বরাদ্দ করেছে রাজ্য সরকার।

পশ্চিমবঙ্গে খোলাবাজারে পেঁয়াজের অগ্নিমূল্য। দাম উঠছে কেজি-প্রতি ১২০ থেকে ১৩০ টাকা। পাইকারি বাজারে পেঁয়াজ কার্যত উধাও। যেখানে পাইকারি বাজারে দক্ষিণের রাজ্যগুলো থেকে প্রতিদিন ১০ থেকে ১৫ গাড়ি পেঁয়াজ আসে, গত মঙ্গলবার এসেছে মাত্র ছয় গাড়ি। আবার শিয়ালদহ বাজারে মাত্র এক গাড়ি পেঁয়াজ এসেছে। কম আমদানির জেরে খোলাবাজারে দামও উঠছে লাফিয়ে-লাফিয়ে।

এ পরিস্থিতিতিতে সাধারণ মানুষকে স্বস্তি দিতে পেঁয়াজ বিক্রির সিদ্ধান্ত আগেই জানিয়েছিল রাজ্য সরকার। সে অনুসারে রাজ্য সরকার ‘সুফল বাংলা’র দোকানে সস্তার পেঁয়াজ জোগানে নিজেরাই কিনছে ১০২ টাকা কেজি দরে। তবে বিক্রি করা হচ্ছে ৫৯ টাকা কেজি দরে। আরো বেশি সংখ্যক মানুষকে স্বস্তি দিতে স্বনির্ভর গোষ্ঠীর মাধ্যমে ন্যায্যমূল্যে পেঁয়াজ বিক্রির সিদ্ধান্তের পর এবার রেশন দোকান থেকেও কম দামে পেঁয়াজ বিক্রি করবে রাজ্য সরকার।

শহরের পাইকারি ব্যবসায়ীরা জানিয়েছেন, দক্ষিণের রাজ্য থেকে পেঁয়াজ আসছেই না। পরিস্থিতি সামাল দিতে কেন্দ্রীয় সরকার বিদেশ থেকে পেঁয়াজ আমদানির কথা বললেও তা এখনো হয়নি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা