kalerkantho

শনিবার । ১৪ ডিসেম্বর ২০১৯। ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১৬ রবিউস সানি               

বাবরি মামলার রায়কে চ্যালেঞ্জ, রিভিউ পিটিশনের সিদ্ধান্ত মুসলিম নেতাদের

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৭ নভেম্বর, ২০১৯ ১৮:৩৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বাবরি মামলার রায়কে চ্যালেঞ্জ, রিভিউ পিটিশনের সিদ্ধান্ত মুসলিম নেতাদের

গত শুক্রবারই অল ইন্ডিয়া মুসলিম পার্সোনাল ল বোর্ড বাবরি মসজিদ মামলায় ভারতের সুপ্রিম কোর্টের রায় পুনর্বিবেচনার আবেদন জানিয়ে আবারো আদালতের দ্বারস্থ হওয়ার ইঙ্গিত দিয়েছিল। সুপ্রিম কোর্ট যে বিকল্প পাঁচ একর জমি দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে, শুক্রবারই তা নিতে আপত্তি জানায় এই মামলার অন্যতম মুসলিম আবেদনকারী সংগঠন জমিয়ত উলেমা-এ-হিন্দ। 

কার্যনির্বাহী কমিটির বৈঠকের পর তারা জানায়, মসজিদের বিকল্প হিসেবে টাকা বা জমি কোনোটিই নিতে রাজি নয় তারা। তারা রায় পর্যালোচনারও আবেদন জানাতে পারে বলে জানায়। এবার মুসলিম নেতারা জানালেন, তারা রায় পুনর্বিবেচনার আবেদন করবেন।

এর আগেই জমিয়ত উলেমা-এ-হিন্দ এর উত্তরপ্রদেশের প্রধান মৌলানা আশাদ রশিদি জানিয়েছেন, ওয়ার্কিং কমিটির বৈঠকে দুটি সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। একটি হলো মসজিদের বিকল্প জমি নিয়ে ও অপরটি রায় পর্যালোচনার আবেদন নিয়ে। সর্বসম্মতভাবে ওয়ার্কিং কমিটি সিদ্ধান্ত নিয়েছে যে, মসজিদের বিকল্প হিসেবে বিশ্বের কোনো কিছুকে মেনে নেওয়া হবে না। টাকা বা জমি কোনোটাই নয়। অন্য কোনো মুসলিম সংগঠনও এই বিকল্প মেনে নিলে সেটা ঠিক কাজ হবে না।

রবিবার বোর্ডের বৈঠকের পর এ নিয়ে ধন্ধ কাটিয়ে মৌলানা আর্শাদ মাদানি জানান, তারা রিভিউ পিটিশন করবেন। দিল্লিতে অল ইন্ডিয়া মুসলিম পার্সোনাল ল বোর্ড-এর সেক্রেটারি সাফরইয়াব জিলানি বলেন, মসজিদের জমি আল্লাহর। এটা শরিয়তি আইনের অধীন বিষয়। এটা কাউকে দেওয়া যায় না। মসজিদের জন্য শীর্ষ আদালত বিকল্প যে পাঁচ একর জমি দেওয়ার কথা বলেছে, তাও মেনে নেওয়া হবে না বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছে বোর্ড। মসজিদের বিকল্প কিছু হয় না, এই সিদ্ধান্তে উপনীত হয়েছে বোর্ড।

অল ইন্ডিয়া মুসলিম পার্সোনাল ল বোর্ড-এর বৈঠকে যোগ দিয়ে জমিয়তের মাদানি আরো বলেন, আমরা খুব ভালো করে জানি রিভিউ পিটিশন শতভাগ খারিজ করে দেওয়া হবে। তবু আমরা মনে করি রিভিউ পিটিশন দাখিল করা উচিত। এটাই সঠিক।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা