kalerkantho

বুধবার । ২০ নভেম্বর ২০১৯। ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২২ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

ভারতের হামলায় ১৮ জঙ্গি ও ১৬ পাকিস্তানি সেনা নিহত : গোয়েন্দা রিপোর্ট

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৩ অক্টোবর, ২০১৯ ১২:২৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ভারতের হামলায় ১৮ জঙ্গি ও ১৬ পাকিস্তানি সেনা নিহত : গোয়েন্দা রিপোর্ট

পাকিস্তানে জঙ্গি ঘাঁটি ধ্বংস করে দেওয়া হয়েছে

ভারতীয় সেনাবাহিনী গত রবিবার পাকিস্তান অধিকৃত কাশ্মীরের নীলম ভ্যালিতে গুলি ও বোমাবর্ষণ করে। ওই হামলায় সেখানে থাকা ৩টি জঙ্গি ঘাঁটি ধ্বংস করে দেওয়া হয়েছে বলে দাবি করেছিলেন ভারতীয় সেনাপ্রধান বিপিন রাওয়াত। তাঁর ওই দাবিকে মেনে নিয়েছে ভারতের একাধিক গোয়েন্দা সংস্থা। ভারতের গোয়েন্দা রিপোর্টে দাবি করা হয়েছে, ভারতীয় সেনাদের গুলিতে ১৮ জঙ্গি ও ১৬ পাক সেনা নিহত হয়েছে। যদিও সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে এখনও কোনও নির্দিষ্ট সংখ্যা বলা হয়নি।

ভারতীয় সেনাপ্রধান বিপিন রাওয়াত রবিবার দু'বার কেন্দ্রীয় প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিংকে এই হামলার ব্যাপারে জানান। 

জানা গেছে, এই খবর শোনার পর রাজনাথ ভারতীয় সেনাবাহিনীর এই কাজের প্রশংসা করেছেন। কিন্তু তিনি এ কথাও স্পষ্ট করে বলেছেন এই হামলায় যেন কোনও নাগরিকের ক্ষতি না হয়।

ভারতীয় সেনা সূত্র বলছে, রবিবার ১৫৫ মিলিমিটার রাইফেল ব্যবহার করেছে ভারতীয় সেনাবাহিনী। গোয়েন্দা রিপোর্টে জানানো হয়েছে এই নীলম ভ্যালিতে জইশ ই মোহাম্মদ ও অন্যান্য জঙ্গিদের একাধিক ঘাঁটি ছিল। ভারতীয় সেনাদের অব্যর্থ নিশানায় তা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। নীলম ভ্যালিতে ৪টি ঘাঁটি ছাড়াও জুরা, আথামুকাম ও কুন্দলশাহিতেও জঙ্গিশিবির ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। তার আগে কারনা সেক্টরে পাকিস্তানি সেনার গুলিতে দুই জওয়ান ও এক সাধারণ নাগরিক নিহত হন। এর বদলা নিতেই গুলি চালায় ভারতীয় সেনা।

ভারতীয় গোয়েন্দা সূত্র জানায়, এই মুহূর্তে অন্তত ৬০ জঙ্গি নিয়ন্ত্রণরেখা পেরিয়ে ভারতে প্রবেশ করেছে। আরও প্রায় ৫০০ জঙ্গি ভারতে ঢোকার অপেক্ষায় আছে। বারবার সংঘর্ষবিরতি চুক্তি লঙ্ঘন করে গুলি চালিয়ে পাকিস্তানি সেনারা সেই জঙ্গিদের সুরক্ষিতভাবে ভারতের ভেতরে প্রবেশ করার ক্ষেত্রে মদদ দিচ্ছে। তারই বদলা নিতে রবিবার এই হামলা চালায় ভারতীয় সেনা।

ভারতীয় সেনাবাহিনীর এক কর্মকর্তা জানান, পাক সেনা ও জঙ্গিরা ভাবতেও পারেনি এভাবে সীমান্তের এপার থেকে সঠিক নিশানায় আঘাত করবে ভারতীয় সেনারা। ঠিক কোথায় জঙ্গি ঘাঁটি রয়েছে তার হদিস কীভাবে ভারতীয় সেনাবাহিনী পেল তা ভেবেই কুলকিনারা পাচ্ছে না পাকিস্তানি সেনাবাহিনী। এই হামলার মাধ্যমে ভারতীয় সেনাবাহিনী একটা স্পষ্ট বার্তা দিয়েছে বলেই জানিয়েছেন তিনি। সেটা হলো, ভারতে সন্ত্রাস ছড়ানোর চেষ্টা করলে এভাবেই তার জবাব দেওয়া হবে।

সূত্র : দ্য ওয়াল 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা