kalerkantho

বুধবার । ২০ নভেম্বর ২০১৯। ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২২ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

হিন্দুদের পক্ষেই যাবে বাবরি মসজিদের রায়, আরএসএস নেতার দৃঢ় প্রত্যাশা

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৯ অক্টোবর, ২০১৯ ১৯:৩৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



হিন্দুদের পক্ষেই যাবে বাবরি মসজিদের রায়, আরএসএস নেতার দৃঢ় প্রত্যাশা

পুরনো ছবি

বাবরি মসজিদ মামলার রায় হিন্দুদের পক্ষেই যাবে বলে আশাপ্রকাশ করেছে রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘ। এরই মধ্যে মধ্যস্থতাকারী কমিটির ফাঁস হওয়া প্রতিবেদন নিয়ে উত্তেজনা তৈরি হয়েছে। চূড়ান্ত শুনানির শেষ সময়ে ওই রিপোর্ট প্রকাশ্যে আসার পেছনে রহস্য রয়েছে বলেও অভিযোগ করছেন অনেকেই।

পাশাপাশি ওই প্রতিবেদনের তীব্র বিরোধিতা করেছে বাবরি মসজিদ মামলায় অংশ নেওয়া ছয়টি মুসলিম সংগঠন। ঠিক সেই সময় উড়িষ্যার ভুবনেশ্বরে আয়োজিত কর্মসূচিতে গিয়ে রায় হিন্দুদের পক্ষেই যাবে বলে মন্তব্য করেছেন সংঘের সাধারণ সম্পাদক সুরেশ ভাইয়াজি যোশী।

গতকাল শুক্রবার ভুবনেশ্বরে অখিল ভারতীয় কার্যকরী মণ্ডলীর বৈঠকে অংশ নিতে যান রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘের সেকেন্ড ম্যান ভাইয়াজি। সেখানে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি বলেন, অযোধ‌্যা মামলার রায় হিন্দুদের পক্ষেই যাবে বলে মনে করছি আমরা। এর আগে অযোধ‌্যা মামলা আদালতের বাইরে আলোচনার মাধ‌্যমে মেটানোর চেষ্টা করেছি। 

তিনি আরো বলেন, মধ‌্যস্থতার মাধ‌্যমেও এটা মেটানোর চেষ্টা করা হয়েছে। কিন্তু, তাতে কাজের কাজ কিছু হয়নি। ফলে সেই আদালতের রায়ের উপরেই আমাদের নির্ভর করতে হয়েছে। যদিও সংঘ চেয়েছিল আলোচনার মাধ‌্যমে এই বিরোধ মিটিয়ে ফেলতে। কিন্তু, বাস্তবে তা হয়নি।

তিনি আরো বলেন, আমরা আগেই বলেছি, পশ্চিমবঙ্গে হিন্দুদের মুছে ফেলার একটা সুপরিকল্পিত চক্রান্ত চলছে। কিন্ত, এ ব‌্যাপারে পশ্চিমবঙ্গে সরকারের নীরবতা দেখে আমার অবাক লাগছে। অতীতে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির যে নজির ও ইতিহাস বাংলার ছিল। এখন তা আর নেই।

তিনি আরো বলেন, সব রাজ্যেই এনআরসি কার্যকর করা উচিত। আরএসএসও এটাই চায়। ভারতে পাকিস্তানি এবং বাংলাদেশি অনুপ্রবেশকারীদের কোনো জায়গা নেই।

কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা প্রত্যাহারের ব্যাপারে তিনি বলেন, কাশ্মীরের ভূমিপুত্ররা ও শরণার্থী হিন্দুরা যেন তাদের পুরনো ঘরবাড়িতে ফিরতে পারেন এবং নিরাপদে থাকতে পারেন। এটা কেন্দ্রীয় সরকারকেই করতে হবে। ৩৭০ ধারা তুলে দিয়ে কাশ্মীরকে অভিশাপ থেকে মুক্তি দিয়েছে সরকার। তাই স্বর্গও তাদেরই বানাতে হবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা