kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৯ নভেম্বর ২০১৯। ৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২১ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

৬০ বছরে সবচেয়ে শক্তিশালী টাইফুনের আঘাত জাপানে, নিহত ২

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১২ অক্টোবর, ২০১৯ ২১:১১ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



৬০ বছরে সবচেয়ে শক্তিশালী টাইফুনের আঘাত জাপানে, নিহত ২

১০৫৮ সালের পর সবচেয়ে শক্তিশালী টাইফুন হাগিবিসের তাণ্ডবে জাপানের সবচেয়ে বড় দ্বীপ হনশুতে দুই জন নিহত ও প্রায় ৬০ জন আহত হয়েছেন।

টাইফুনটির কারণে টোকিওতে ৬০ বছরের মধ্যে সবচেয়ে ভারী বৃষ্টিপাত ও ঝড় বয়ে যাচ্ছে বলেও জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স। 

কর্তৃপক্ষগুলো স্থানীয় ষাট লাখেরও বেশি লোককে তাদের ঘরবাড়ি ছেড়ে নিরাপদ আশ্রয়ে চলে যাওয়ার পরামর্শ দিয়েছে।

শনিবার সন্ধ্যায় টাইফুন হাগিবিস জাপানের প্রধান দ্বীপ হনশুর উপকূল দিয়ে স্থলে উঠে আসে। পূর্ণ জোয়ার চলার সময় টাইফুনটি স্থলে উঠে আসায় কয়েকটি নদীর পানি তীর ছাপিয়ে উপচে পড়ে। এতে টোকিওর নিচু এলাকাগুলোতে বন্যার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে।

হাগিবিস ১৯৫৮ সালের পর থেকে টোকিওতে আঘাত হানা সবচেয়ে শক্তিশালী টাইফুন হতে পারে বলে আগেই সতর্ক করেছে জাপান সরকার। এর প্রভাবে বহু জায়গায় আগের রেকর্ড ছাড়িয়ে যাওয়া বৃষ্টিপাত হচ্ছে বলে জানা গেছে। এসব এলাকার মধ্যে উষ্ণ প্রস্রবণের শহর হাকোনেতে ২৪ ঘণ্টায় ৯৩৯ দশমিক পাঁচ মিলিমিটার (৩৭ ইঞ্চি) বৃষ্টিপাত হয়েছে। 

টোকিওসহ জাপানের ১২টি প্রশাসনিক এলাকায় সর্বোচ্চ সতর্কতা জারি করেছে দেশটির আবহাওয়া সংস্থা। এসব এলাকায় কয়েক দশকের মধ্যে মাত্র একবার ঘটে এমন প্রবল বৃষ্টিপাত হতে পারে বলে সতর্ক করেছে সংস্থাটি।

দেশটির রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম এনএইচকেতে সম্প্রচারিত এক সংবাদ সম্মেলনে আবহাওয়া সংস্থার এক কর্মকর্তা বলেছেন, ‘ইতোমধ্যেই বন্যা ও ভূমিধসের কারণে ক্ষয়ক্ষতি হওয়া হয়তো শুরু হয়ে গেছে। নিজের ও প্রিয়জনের জীবন রক্ষায় সবারই দ্রুত পদক্ষেপ নেওয়া দরকার।’

টাইফুনের তাণ্ডব শুরু হওয়ার আগে শনিবার সকালে টোকিও ও এর আশপাশের বহু লোক অস্থায়ী আশ্রয়কেন্দ্রগুলোতে গিয়ে অবস্থান নিয়েছে।

রাজধানী টোকিওর পূর্বাঞ্চলে শনিবার ভোরে ঝড়ো বাতাসে গাড়ি উল্টে ৪০ বছরের এক ব্যক্তির মৃত্যু হয় বলে জানায় রাষ্ট্রীয় সম্প্রচার মাধ্যম এনএইচকে। জাপানের পূর্বাঞ্চলীয় একটি শহরে ভূমিধসে দুটি বাড়ি ধ্বংস হয়ে আরও এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত এখানে কয়েকজন নিখোঁজ রয়েছেন বলে এনএইচকে জানিয়েছে।

বিবিসি জানায়, ঝড়ের প্রভাবে এরই মধ্যে হাজার হাজার বাড়িঘর বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে।

দোকানপাঠ, কারখানা এবং ট্রেন চলাচল ব্যবস্থাও বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

হাগিবিস শব্দের অর্থ ‘গতি’। ফিলিপিন্সের ভাষা ‘তাগালগ’ থেকে হাগিবিস শব্দটি নেওয়া হয়েছে।

মাত্র এক মাস আগেই জাপানে আঘাত হানা শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় ফাইয়ের আঘাতে ৩০ হাজার ঘরবাড়ি ধ্বংস হয়ে যায়।

জাপানে ‘ফর্মুলা ওয়ান গ্র্যান্ড পিক্স’ এবং ‘রাগবি ওয়ার্ল্ড কাপ’র খেলা চলছে। উভয় খেলার আয়োজকরা শনিবারের সব ম্যাচ বাতিল ঘোষণা করেছেন।

ঝড়ের কারণে ১৬শর বেশি ফ্লাইট বাতিল করা হয়েছে। টোকিওর কাছে নারিতা আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের কার্যক্রম স্থানীয় সময় সকাল ১১ থেকে সম্পূর্ণ বন্ধ রাখা হয়েছে।

টোকিও থেকে ট্রেন চলাচলও বন্ধ আছে।

এর আগে ১৯৫৮ সালে শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় ‘ইডা’র আঘাতে জাপানে প্রায় দেড় হাজার মানুষ প্রাণ হারিয়েছিল।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা