kalerkantho

মঙ্গলবার । ২২ অক্টোবর ২০১৯। ৬ কাতির্ক ১৪২৬। ২২ সফর ১৪৪১            

সার্জিক্যাল স্ট্রাইক করে কমিউনিস্টদের ঘাঁটি গুঁড়িয়ে দেব : দিলীপ ঘোষ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ১৬:৩২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সার্জিক্যাল স্ট্রাইক করে কমিউনিস্টদের ঘাঁটি গুঁড়িয়ে দেব : দিলীপ ঘোষ

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেছেন, বাবুল সুপ্রিয়র গায়ে যারা হাত তুলেছে, তাদের হাত কীভাবে ভাঙতে হয়, তা জানি। তিনি আরো বলেন, পাকিস্তানে যেমন সার্জিক্যাল স্ট্রাইক হয়েছিল, তেমনই যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়েও সার্জিক্যাল স্ট্রাইক করে কমিউনিস্টদের ঘাঁটি গুঁড়িয়ে দেব।

দিলীপ ঘোষ বলেন, আমরা চুপ করে আছি বলে যদি কেউ ভাবে এটাকে আমাদের দুর্বলতা, তাহলে সেটা তাদের ভুল। ওরা যে ভাষা বোঝে সেই ভাষাতেই উত্তর দেওয়া হবে।

যাদবপুর কাণ্ডের প্রতিবাদে শুক্রবার বিকেলে রাজ্য বিজেপি দপ্তরে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন দিলীপ ঘোষ। ওই সম্মেলনের প্রথম থেকেই বামপন্থী ছাত্র সংগঠনগুলো ও রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগড়ে দেন রাজ্য বিজেপি সভাপতি।

তিনি বলেন, যে বাবুলের চুল ধরে টেনেছে, তার ঠিকুজি-কুষ্ঠি বের করেছি। আগে ওদের দেশবিরোধী বলতাম, এবার ওদের সমাজবিরোধী বলব। ৬ ঘণ্টা ধরে একজন কেন্দ্রীয় মন্ত্রীকে আটকে রাখা হলো। তাকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখানো হলো। নিগ্রহ করা হলো। এরপরেও কিছু মানুষ এদের সমর্থনে কথা বলছে। কোনো শুভবুদ্ধি সম্পন্ন মানুষ এই কাজকে সমর্থন করতে পারে না।

মমতাকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, বাবুলের ওপর নিগ্রহ হোক সেটা মুখ্যমন্ত্রী চেয়েছিলেন। উপাচার্য কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর নিগ্রহ রুখতে ব্যর্থ। তার ইস্তফা দেওয়া উচিত।

একই ইস্যুতে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি ও শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের ইস্তফা চেয়েছেন বিজেপি নেতা মুকুল রায়। পাশাপাশি, যে ছাত্রটিকে বাবুল সুপ্রিয়র মাথার চুল টানতে দেখা গেছে, তার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানান তিনি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা