kalerkantho

মোদির বিরুদ্ধে বিদ্রোহ মমতার, ‘কলকাতায় ট্রাফিক আইন মানব না’

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ২১:৩৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মোদির বিরুদ্ধে বিদ্রোহ মমতার, ‘কলকাতায় ট্রাফিক আইন মানব না’

ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারের নতুন মোটরযান আইন চালু সারা দেশে চালু হয়ে গিয়েছে। আর তারপর থেকেই সাধারণ মানুষের নাকাল হওয়ার ঘটনা সামনে আসছে। তাই এই নতুন মোটরযান আইন চালু করবে না মমতা ব্যানার্জি। এর আগেও তিনি বেশ কিছু নয়া আইন মানবে না বলে জানিয়েছিলেন।

মমতা ব্যানার্জি দেশটির স্থানীয় সংবাদমাধ্যমকে জানায়, সম্প্রতি সংসদে যে নতুন মোটরযান আইন চালু হয়েছে, আমরা তা মানব না। এ আইন খুব কঠোর। আমরা আমাদের ট্রাফিক নিরাপত্তা কর্মসূচি ‘সেফ ড্রাইভ সেভ লাইফ’য়ে বিশেষ জোর দিয়েছি এবং পুলিশ ও অন্যান্যরা দুর্ঘটনা কমাতে সচেষ্ট। দুর্ঘটনার সংখ্যা এরই মধ্যে কমেও এসেছে। আমরা ওই আইন চালু করব না কারণ তা মানুষের ওপর অতিরিক্ত বোঝা হয়ে দাঁড়াবে।

বিধানসভায় মমতা বলেন, নতুন মোটরযান আইন যুক্তরাষ্ট্রীয় কাঠামোয় হস্তক্ষেপ। নয়া আইনে যে বেশি জরিমানার কথা রয়েছে, সে সম্পর্কে বলতে গিয়ে মমতা বলেন, এ সমস্যা মানবিকভাবে সমাধান করা সম্ভব। তিনি বলেন, পাঁচশ টাকা জরিমানার বদলে আপনারা দশ হাজার টাকা জরিমানার প্রস্তাব করছেন। অনেক গরিব মানুষ রয়েছেন। তারা কোথা থেকে এত টাকা পাবেন? টাকা কোনো সমাধান নয়। সমস্যার সমাধান করতে হবে মানবিকভাবে। 

এর আগে মোটরবাইক আরোহী যুবকদের হাতে মডেল অভিনেত্রীর লাঞ্ছনার ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে রাজ্য জুড়ে ট্রাফিক আইনে কড়াকড়ি করা হচ্ছে এবং গুরুত্বপূর্ণ রাস্তা ও মোড়ে চেকপয়েন্টে পরিদর্শনের ব্যবস্থা করা হচ্ছে। নতুন আইন ১ সেপ্টেম্বর থেকে কার্যকর হচ্ছে। বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ সংশোধনী আনা হয়েছে নতুন আইনে। এর মধ্যে মদ্যপান করে গড়ি চালানোর ক্ষেত্রে প্রথমবার আইন ভঙ্গ করলে ১০ হাজার টাকা পর্যন্ত জরিমানা এবং ৬ মাস পর্যন্ত কারাদণ্ড এবং দ্বিতীয় অপরাধের ক্ষেত্রে ১৫ হাজার টাকা পর্যন্ত জরিমানা ও ২ বছর পর্যন্ত কারাদণ্ডের কথা বলা হয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা