kalerkantho

মহররমে রক্তদান করে নজির গড়লেন চার বন্ধু

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ১৩:৪৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মহররমে রক্তদান করে নজির গড়লেন চার বন্ধু

প্রতীকী ছবি

গতকাল ছিল ১০ মহররম, পবিত্র আশুরা। আর এই দিনে নজির গড়লেন চার বন্ধু। শাহিদ শেখ, সারাফত শেখ, আবদুল্লা শেখ ও ইবাদত শেখ নামের  চার যুবক রক্তদান করে মহররম পালন করেছেন। এমনটাই ঘটেছে ভারতের পূর্ব বর্ধমানে। 

জানা গেছে, ওই ৪ যুবক পূর্ব বর্ধমানের নাদনঘাটের সমুদ্রগড় ডাঙাপাড়ার বাসিন্দা। তাদের রক্তদানের সিদ্ধান্তকে সাধুবাদ জানাচ্ছেন এলাকার বাসিন্দারা। 

ওই এলাকার বাসিন্দা কালো শেখ ও আরতি খান বলেন, টিভি খুললে বা খবরের কাগজে চোখ রাখলে শুধু রক্ত ঝরানোর খবরই দেখি, তার উল্টোপিঠে দাঁড়িয়ে রক্তদান করে মহররমের কৌলিন্য বাড়ালেন শাহিদ–সারাফতরা। দৃষ্টান্তও সৃষ্টি করলেন তারা। 

এদিকে, মঙ্গলবার পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের দক্ষিণবঙ্গের প্রতিটি জেলাতেই মহররম পালিত হয়। এদিন মহররম উপলক্ষে তাজিয়া, আখড়া ও ঢাল নিয়ে আলাদা আলাদা শোভাযাত্রায় পূর্ব বর্ধমানের বিসি রোডে মানুষের ঢল নামে। এখানকার রানিগঞ্জ মোড়ের কাছে ঐতিহাসিক কালাপাহাড়ির মাজারে চাদর চড়ান মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ। নাদনঘাটের মতো প্রায় একই ঘটনা ঘটেছে মুর্শিদাবাদেও। সেখানে ধর্ম নয়, মানব ধর্মকে প্রাধান্য দিলেন এক যুবক। যে সময় মহররমের অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়ার কথা, তখন মহররমের অনুষ্ঠানে না গিয়ে অসুস্থ এক রোগীকে রক্ত দিয়ে প্রাণে বাঁচালেন তিনি। একজন অসুস্থ থ্যালাসেমিয়া রোগীর পাশে দাঁড়ালেন মোহাম্মদ তৌফিক হোসেন (২৫) নামে এক যুবক। মঙ্গলবার মহররমের দিনেই বেলডাঙার অসুস্থ নারী সেরিনা বিবিকে মুর্শিদাবাদ মেডিক্যাল কলেজে গিয়ে রক্ত দিয়ে নজির গড়েন তিনি। এদিন মহররম উপলক্ষে পুরুলিয়ায় সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির নিদর্শন রেখে লাঠি খেলায় অংশ নেন জেলা পরিষদের সভাপতি সুজয় ব্যানার্জি। মহররম উপলক্ষে তাজিয়া নিয়ে শোভাযাত্রা বের হয় পশ্চিম মেদিনীপুরেও।

সূত্র : আজকাল 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা