kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১ শ্রাবণ ১৪২৭। ১৬ জুলাই ২০২০। ২৪ জিলকদ ১৪৪১

জালিয়ানওয়ালাবাগ হত্যাকাণ্ডের জন্য লজ্জিত ব্রিটিশ যাজক

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১০ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ২২:৫৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



জালিয়ানওয়ালাবাগ হত্যাকাণ্ডের জন্য লজ্জিত ব্রিটিশ যাজক

জালিয়ানওয়ালাবাগ হত্যাকাণ্ড ভারতীয় উপমহাদেশের ইতিহাসে অন্যতম কুখ্যাত গণহত্যা। ১৯১৯ সালের ১৩ এপ্রিলে অবিভক্ত ভারতের পাঞ্জাব প্রদেশের অমৃতসর শহরে ইংরেজ সেনানায়ক ব্রিগেডিয়ার রেগিনাল্ড ডায়ারের নির্দেশে এই হত্যাকাণ্ড সংঘটিত হয়। মৃতের সংখ্যায় হেরফের হলেও জালিয়ানওয়ালাবাগ হত্যাকাণ্ডের ভয়াবহতা নিয়ে মতপার্থক্য নেই ইতিহাসবিদদের মধ্যে। এ বার তা মেনে নিলেন ইংল্যান্ডে খ্রিস্টধর্মের মানুষের তীর্থক্ষেত্র হিসাবে প্রসিদ্ধ ক্যান্টারবারি’র যাজকও। একশো বছর আগের নৃশংস হত্যাকাণ্ডের জন্য অত্যন্ত লজ্জিত তিনি।

ভারতের জনপ্রিয় সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজারে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে জানা যায়, দু’দিনের সফরে গতকাল সোমবার স্ত্রীকে নিয়ে অমৃতসর এসে পৌঁছন ক্যান্টারবারির যাজক জাস্টিন ওয়েলবি। আর আজ মঙ্গলবার জালিয়ানওয়ালাবাগ স্মৃতি উদ্যানে যান তিনি। সেখানেই মাটিতে লুটিয়ে পড়ে নৃংশসতার জন্য ক্ষমা চান। এ সময় তিনি বলেন, ‘ব্রিটিশ সরকারের প্রতিনিধি  আমি নই। রাজনীতিকও নই। তবে ধর্মীয় নেতা হিসাবে যে মর্মান্তিক ইতিহাসের সাক্ষী হলাম, তাতে শোকস্তব্ধ আমি। যে জঘন্য অপরাধ ঘটানো হয়েছে, তার জন্য অত্যন্ত লজ্জিত।’

জালিয়ানওয়ালাবাগ স্মৃতি উদ্যান পরিদর্শন শেষে ভিজিটর বুকে নিজের অনুভূতি লেখেন তিনি। সেখানে লেখেন, আর্চবিশপ জাস্টিন লেখেন, একশো বছর আগে এই উদ্যান যে নৃশংসতার সাক্ষী থেকেছে, তাতে আজও এখানে এসে লজ্জায় মাথা নত হয় যাই। মৃতদের পরিবার এবং আত্মীয়েরা সেই ক্ষত কাটিয়ে উঠবেন আশা করি। সেই সঙ্গে প্রার্থনা করি, আমরা যেন ইতিহাস থেকে শিক্ষা নিতে পারি। হিংসার শিকড় উপড়ে ফেলে ছড়িয়ে দিতে পারি সমন্বয়ের বার্তা।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা