kalerkantho

তরুণীকে দ্বিতীয় জীবন দিল কচুরিপানা

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১০ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ২০:১৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



তরুণীকে দ্বিতীয় জীবন দিল কচুরিপানা

রাখে আল্লাহ, মারে কে! আত্মহত্যা করার জন্য গঙ্গায় ঝাঁপ দিয়েও বেঁচে গেলেন ভারতের হালিশহরের এক ছাত্রী।  জানা গেছে, পরিবারের লোকজনের ওপর অভিমান করে গঙ্গায় আত্মহত্যা করতে গিয়ে কচুরিপানার ঝাড়ে আটকে প্রাণে বেঁচেছেন একাদশ শ্রেণির ওই ছাত্রী। 

পানিতে ঝাঁপ দেওয়ার প্রায় আড়াই ঘণ্টা পর অচেতন অবস্থায় তাকে চন্দননগর রানীঘাটে উদ্ধার করেন মাঝিরা। পরে তাকে চন্দননগর হাসপাতালে ভর্তি করা হলে সেখানেই জ্ঞান ফেরে।

পরিবারের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, গত রবিবার রাতে পড়াশোনার বিষয়ে মা-বাবার সঙ্গে মান অভিমান হয় একাদশ শ্রেণির ওই ছাত্রীর। এরপর সোমবার ভোরে হালিশহরের শ্যামবাবু ঘাটে গিয়ে গঙ্গায় ঝাঁপ দেন তিনি।

কিন্তু ভাগ্যক্রমে রক্ষাকর্তা হয়ে ওঠে কচুরিপানা। স্থানীয়রা বলছেন, সাঁতার  জানলেও কচুরিপানাকে আঁকড়ে ধরে জোয়ারের টানে চন্দননগরের দিকে চলে আসেন ওই ছাত্রী। চন্দননগর আর জগদ্দল ঘাটের মাঝামাঝি জায়গায় তার দেহ উদ্ধার করেন মাঝিরা। সেখান থেকে ছাত্রীকে রানীঘাটে তোলা হলে দেখা যায় তিনি জীবিত।

এরপর স্থানীয়রা তাকে চন্দননগর হাসপাতালে ভর্তি করলে চিকিৎসকদের তৎপরতায় জ্ঞান ফেরে ওই ছাত্রীর। খোঁজ খবর নিয়ে বাড়ির লোকের সঙ্গে যোগাযোগ করতেই হাসপাতালে ছুটে আসেন ছাত্রীটির মা-বাবা। সামান্য বকুনির কারণে যে মেয়ে এত বড় কাণ্ড ঘটিয়ে ফেলবে, সেটা ভেবেই শিউরে উঠছেন ছাত্রীর পরিবারের লোকজন।

মেয়েকে জীবিত অবস্থায় পেয়ে যা বললেন মা

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা